Post is pinned.Post has attachment
আচ্ছালামু আলাইকুম ওয়া রাহমাতুল্লাহ ওবারাকাতুহু
কেমন আছেন সবাই



Photo

Post has shared content

Post has shared content
*ঈদ আরবী শব্দ, অর্থ-আনন্দ, ফিতর-অর্থ, রোজা ভঙ্গ করা।আনন্দ ভরা, ভ্রাতৃত্ব- ভালবাসা ও সহমর্মিতায় অম্লান ঈদুল ফিতর, মুসলিমদের অন্যতম আনন্দ উৎসব। আল্লাহ রাব্বুল আলামীন এ দিবসে তার বান্দাদেরকে নেয়ামত ও অনুগ্রহ দ্বারা বার বার ধন্য করেন ও বার বার তার এহসানের দৃষ্টি দান করেন। যেমন রমজানে পানাহার নিষিদ্ধ করার পর আবার পানাহারের আদেশ প্রদান করেন। *
Photo

Post has attachment
জুম্মা মোবারক

Post has shared content

Post has attachment

Post has shared content
‎ بِسْــــــــــــــــــــــمِ اﷲِارَّحْمَنِ ارَّحِيم
Assalamu Alaikum
-----------------
সব প্রশংসা জগতসমূহের প্রতিপালক একমাত্র আল্লাহর।
হে জগত সমূহের প্রতিপালক! ক্ষমা করে দাও আমাদের যাবতীয় পাপ!
হে অপরাধীদের অপরাধ ক্ষমাকারী।
ক্ষমা করে দাও আমাদের অপরাধ!
হে দয়াবানদের মধ্যে শ্রেষ্ঠ দয়াময়।
আমাদের প্রতি দয়াশীল হও!
হে দানশীলদের মধ্যে সর্বোত্তম দানশীল।
হযরত মুহাম্মদ (সঃ) এবং তাঁর পবিত্র বংশধরদের ওপর রহমত বষর্ণ কর!
হে আবেদনকারীদের আবেদন কবুলের চূড়ান্ত উৎস ।তোমার ক্রোধ ও যন্ত্রণাদায়ক শাস্তি থেকে আমাদের রক্ষা কর!
হে মুসলমানদের মর্যাদা দানকারী।হে তাবত দুনিয়ার রহস্যজ্ঞানী তুমি বড়ই ক্ষমাশীল ও অনুগ্রহকারী এবং ক্ষমা করতে তুমি পছন্দ কর সুতারাং আমাদের ক্ষমা করে দেও!
হে ঈমানদারদের অন্তরে প্রশান্তি দানকারী।হে নবীদের অন্তরের পবিত্রতা রক্ষাকারী তুমি শান্তি ও রহমাত বর্ষিত কর তোমার নেক বান্দাদের উপর!"লাইলাহা ইল্লাল্লাহু মুহাম্মদুর রসুরুল্লাহ(সা:)"
হে আবেদনকারীদের আবেদন শ্রবণকারী আল্লাহ তুমি আমাদের দো'য়া কবুল করে নেও!আমিন
Photo

Post has attachment
‎ بِسْــــــــــــــــــــــمِ اﷲِارَّحْمَنِ ارَّحِيم
Assalamu Alaikum
-------------------
সব প্রশংসা জগতসমূহের প্রতিপালক একমাত্র আল্লাহর।
হে জগত সমূহের প্রতিপালক! ক্ষমা করে দাও আমাদের যাবতীয় পাপ!
হে অপরাধীদের অপরাধ ক্ষমাকারী।
ক্ষমা করে দাও আমাদের অপরাধ!
হে দয়াবানদের মধ্যে শ্রেষ্ঠ দয়াময়।
আমাদের প্রতি দয়াশীল হও!
হে দানশীলদের মধ্যে সর্বোত্তম দানশীল।
হযরত মুহাম্মদ (সঃ) এবং তাঁর পবিত্র বংশধরদের ওপর রহমত বষর্ণ কর!
হে আবেদনকারীদের আবেদন কবুলের চূড়ান্ত উৎস ।তোমার ক্রোধ ও যন্ত্রণাদায়ক শাস্তি থেকে আমাদের রক্ষা কর!
হে মুসলমানদের মর্যাদা দানকারী।হে তাবত দুনিয়ার রহস্যজ্ঞানী তুমি বড়ই ক্ষমাশীল ও অনুগ্রহকারী এবং ক্ষমা করতে তুমি পছন্দ কর সুতারাং আমাদের ক্ষমা করে দেও!
হে ঈমানদারদের অন্তরে প্রশান্তি দানকারী।হে নবীদের অন্তরের পবিত্রতা রক্ষাকারী তুমি শান্তি ও রহমাত বর্ষিত কর তোমার নেক বান্দাদের উপর!"লাইলাহা ইল্লাল্লাহু মুহাম্মদুর রসুরুল্লাহ(সা:)"
হে আবেদনকারীদের আবেদন শ্রবণকারী আল্লাহ তুমি আমাদের দো'য়া কবুল করে নেও!আমিন
Photo

Post has shared content
*হযরত জিরবাঈল আলাইহি সালাম সর্বপ্রথম নিজের জায়গায় পৌঁছে যান। তাঁর উপর তখন ইলহাম হয় এবং তিনি বলেন; হে আল্লাহ ! আমি আপনার অমুক অমুক বান্দাকে সিজদারত অবস্থায় দেখেছি। আপনি তাদেরকে ক্ষমা করে দিন। আল্লাহ তায়ালা তখন বলেনঃ আমি তাদেরকে ক্ষমা করে দিলাম। হযরত জিরবাঈল আলাইহি সালাম তখন আরশ বহনকারী ফেরেশতাদরকে এ কথা শুনিয়ে দেন। তখন ফেরেশতারা পরস্পর বলাবলি করেন যে, অমুক অমুক নারী পুরুষের উপর আল্লাহর রহমত ও মাগফিরাত হয়েছে। তারপর হযরত জিরবাঈল আলাইহি সালাম বলেন; হে আল্লাহ ! গত বছর আমি অমুক অমুক ব্যক্তিতে সুন্নাতের উপর আমলকারী এবং আপনার ইবাদতকারী হিসেবে দেখেছি কিন্তু এবার সে বিদআতে লিপ্ত হয়ে পড়েছে এবং আপনার বিধি বিধানের অবাধ্যতা করেছে। তখন আল্লাহ তাবারাক ওয়া তা’য়ালা বলেনঃ হে জিবরাঈল (আ) ! সে যদি মৃত্যুর তিন মিনিট পূর্বেও তাওবা করে নেয় তাহলে আমি তাকে মাফ করে দেবো। হযরত জিরবাঈল আলাইহি সালাম তখন হঠাৎ করে বলেনঃ হে আল্লাহ ! আপনারই জন্যে সমস্ত প্রশংসা। আপনি সমস্ত প্রশংসা পাওয়ার যোগ্য। হে আমার প্রতিপালক ! আপনি আপনার সৃষ্ট জীবের উপর সবচেয়ে বড় মেহেরবান। বান্দা তার নিজের উপর যেরূপ মেহেরবানী করে থাকে আপনার মেহেরবানী তাদের প্রতি তার চেয়েও অধিক। ঐ সময় আরশ এবং ওর চারপাশের পর্দাসমূহ এবং আকাশ ও র মধ্যস্থিত সবকিছুই কেঁপে ওঠে বলেঃ “করুণাময় আল্লাহর জন্যেই সমস্ত প্রশংসা”। হযরত কা’ব রাদিয়াল্লাহু আনহু বলেনঃ যে ব্যক্তি রমযানের রোযা পূর্ণ করে রমযানের পরেও পাপমুক্ত জীবন যাপনের মনোভাব পোষণ করে সে বিনা প্রশ্নে ও বিনা হিসেবে জান্নাতে প্রবেশ করবে।*
Photo

Post has shared content
Wait while more posts are being loaded