তিতুমির এক্সপ্রেস ট্রেন ০৬:৪৪ এ রাজশাহী থেকে চিলাহাটির উদ্দেশে ছেড়ে গেল।

Post has attachment

Post has attachment
ঈদ উল আজহা উপলক্ষে ট্রেনের অগ্রিম টিকেট বিক্রির সময়সূচী
Courtesy: Mustafiz
Photo

ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা পদ্মা এক্সপ্রেস ০৬:১০ এ রাজশাহী পৌছালো।

তিতুমির এক্সপ্রেস নির্ধারিত সময়ে (০৬:২০) রাজশাহী থেকে চিলাহাটীর উদ্দেশ্যে ছেড়ে গেল।

Post has attachment
বাংলাদেশে ভারতের ভিসা প্রদানের জন্য এখন পর্যন্ত ১২ টি ভিসা সেন্টার চালু করেছে এবং ২ টি হাইকমিশন অফিস। ঠিকানা ও বিস্তারিত দেখুন।

ভারত সরকার বাংলাদেশের মানুষের যাতায়াত সুবিধা করতেই প্রতিনিয়ত বিভিন্ন সুবিধা যোগ করে যাচ্ছে। এতে করে ভারত সরকার শত শত কোটি টাকা তাদের সরকারের কোষাগারে যোগ করছে সেই সাথে বাংলাদেশের মানুষের জন্য সুবিধা বটে।

কারণ ভারত চিকিৎসা শাস্ত্রে, আইটি সেক্টরে এবং ট্যুরিস্ট স্থান হিসেবে বিশেষ ভাবে পরিচিত। তাই প্রতি বছর বাংলাদেশ থেকেই ঘুরতে , চিকিৎসা করানোর জন্য লাখ লাখ মানুষ যাচ্ছে আর আসছে।

একটা হিসেব দিচ্ছি যশোর বেনাপোল বর্ডার দিয়েই এখন প্রতিদিন প্রায় ৫০০০ লোক যাতায়াত করছে তাহলে অন্য রুটের কথা তো বাদ ই দিলাম তবে বিডির ৭০% লোক বেনাপোল দিয়েই যাতায়াত করে এবং করতে পছন্দ করে কারণ কলকাতা যে বেনাপোলের খুব কাছে।

:#বিস্তারিত ভিসা সেন্টারের ঠিকানাঃ

১। আইভিএসি, খুলনা

ভারতীয় ভিসা আবেদন কেন্দ্র
ডাঃ মতিয়ার রহমান টাওয়ার,
৬৪, কেডিএ এভিনিউ,
কেডিএ বাণিজ্যিক এলাকা,
ব্যাংকিং জোন, খুলনা-৯১০০
Hot Line: 09612 333 666, 09614 333 666
E-mail: info@ivacbd.com
Website: www.ivacbd.com

২। আইভিএসি,রাজশাহী

মরিয়ম আলী টাওয়ার,
হোল্ডিং নং ১৮, নং ৫৫৭ প্লট, ১ম তলা,
প্রাচীন বিসমিল্লাহ গ্রেটার রোড,
বর্ণালী মোড়, ১ম তলা, ওয়ার্ড নং -১০, রাজশাহী.
Hot Line: 88-0721-812534, 88-0721-812535
E-mail: info.Rajshahi@ivacbd.com
Website: www.ivacbd.com

৩। আইভিএসি,সিলেট

ভারতীয় স্টেট ব্যাঙ্ক
রহিম টাওয়ার, সুভানিঘাট বিশ্বরোডে রোড,
সিলেট ৩১০০,বাংলাদেশ.
Hot Line: 00-88-0821 - 719273
E-mail: info@ivacbd.com
Website: www.ivacbd.com

৪। আইভিএসি,চট্টগ্রাম

ভারতীয় স্টেট ব্যাঙ্ক
২১১১, জাকির হোসেন রোড, হাবিব লেন,
বিপরীত পবিত্র ক্রিসেন্ট হাসপাতাল, চট্টগ্রাম
Hot Line: 00-88 -031-653100
E-mail: ivacctg@colbd.com
Website: www.ivacbd.com

৫। আইভিএসি,মতিঝিল

ভারতীয় স্টেট ব্যাঙ্ক
সাধারন বীমা ভবন,
২৪-২৫, দিলকুশা বা / এ,
Hot Line: 09612 333 666, 09614 333 666
E-mail: info@ivacbd.com
Website: www.ivacbd.com

৬। আইভিএসি ,গুলশান, ঢাকা

হাউজ # ১২, রোড # ১৩৭,
গুলশান -১, ঢাকা -১২১২,বাংলাদেশ.
Hot Line: 09612 333 666, 09614 333 666
E-mail: info@ivacbd.com
Website: www.ivacbd.com

৭। আইভিএসি,রংপুর

জে বি সেন রোড,
বিপরীত রাম কৃষ্ণ মিশন
মাহিগঞ্জ ,রংপুর
Hot Line: 88-05-2167074
E-mail: info.rajshahi@ivacbd.com
Website: www.ivacbd.com

৮। আইভিএসি,ময়মনসিংহ

২৯৭/১, মাসাকান্দা,
১ম তলা, মাসাকান্দা বাসস্ট্যান্ড, ময়মনসিংহ
Hot Line: 09612 333 666
E-mail: info@ivacbd.com
Website: www.ivacbd.com

৯। আইভিএসি বরিশাল

উত্তর সিটি সুপার মার্কেট,
১ম তলা, বরিশাল সিটি কর্পোরেশন,
অমৃতা লাল দে রোড, বরিশাল
Hot Line: 09612 333 666
E-mail: info@ivacbd.com
Website: www.ivac.com

১০। আইভিএসি ,উত্তরা, ঢাকা

সেক্টর # ৭, রোড # ১৮, বাড়ি # ৫৬
উত্তরা, ঢাকা -১২৩০, বাংলাদেশ.
Hot Line: 09612 333 666
E-mail: info@ivacbd.com
Website: www.ivacbd.com

১১। আইভিএসি, মিরপুর রোড, ঢাকা

আলামিন আপন হাইটস ২৭/১ / বি (১ ম তলা) শ্যামলী,
(শ্যামলী সিনেমা হলের বিপরীতে)
মিরপুর রোড, ঢাকা ১২০৭
Hot Line: 09612 333 666
E-mail: info@ivacbd.com
Website: www.ivacbd.com

১২। আইভিএসি ,যশোর

ভারতীয় ভিসা আবেদন কেন্দ্র, যশোর
২১০, নড়াইল রোড, যশোর
(বিএডিসি বীজ স্টোরেজ গুদাম সুপারিবাগান এর বিপরীত দিকে )
Hot Line: 09612 333 666, 09614 333 666
E-mail: info@ivacbd.com
Website: www.ivacbd.com

ভারতের হাইকমিশের একটি ঢাকাতে অবস্থিত আর ২য় টি খুলনাতে করা হবে। খুলনা হাই কমিশনারের অফিস করা হলে খুলনাবাসি ১/২ দিনের মধ্যে ভিসা পেয়ে যাবে। খুলনাতে সরাসরি ভিসা প্রদান সেপ্টেম্বারের মাঝামাঝি চালু হবে।

Post has attachment
জেনে নিন ঈদের অগ্রিম টিকেট সংক্রান্ত প্রয়োজনীয় তথ্য।

Post has attachment
পাবনাবাসীর দীর্ঘদিনের প্রতীক্ষার অবসান হতে যাচ্ছে।

Post has attachment

Post has attachment

Post has attachment
আপনি কি ইন্ডিয়ার ভেলর / চেন্নাই / দিল্লি / তাজমহল / মুম্বাই / শিমলাতে যাওয়ার জন্য ট্রেনের টিকিট নিয়ে বিস্তারিত জানতে চাচ্ছেন?

যারা ইন্ডিয়া ঘুরতে বা চিকিৎসার জন্য যেতে চান তারা সাধারনত ট্রেনে করেই বেশি সংখ্যক লোক যেতে ইচ্ছুক আর সেটা কলকাতার হাওড়া স্টেশন থেকেই বাংলাদেশের ৮০% লোক যাতায়াত করে বিভিন্ন গন্তব্যের দিকে যেমন হাওড়া টু চেন্নাই, হাওড়া টু দিল্লি, হাওড়া টু আগ্রা, হাওড়া টু গোয়া ইত্যাদি। আসুন জেনে নেই কিভাবে যাবেন এবং ট্রেনের বিস্তারিত আপডেট তথ্য।

ইন্ডিয়ার প্রধান যাতায়াত ব্যবস্থা হচ্ছে ট্রেন। এই ট্রেন দিয়েই ১২৫ কোটি লোকের দেশে বিভিন্ন রাজ্যে যাতায়াত করে। আর তাই ট্রেনের টিকিট নিয়ে চরম বিড়ম্বনায় পড়তে হয়। আসুন জেনে নেই কোন ট্রেন কখন ছাড়ে, কখন পৌঁছায়, ভাড়া কত ইত্যাদি।

# ট্রেনের গন্তব্য, সময় ও ভাড়া :
কলকাতার হাওড়া এবং শিয়ালদহ স্টেশন থেকে প্রতিদিন ৬০০ এর উপর ট্রেন যাওয়া আসা করে বিভিন্ন রাজ্যের দিকে
যেমন:
১। হাওড়া টু চেন্নাই
২। হাওড়া টু বেংগালুর
৩। হাওড়া টু দিল্লি
৪। হাওড়া টু মুম্বাই
৫। হাওড়া টু নিউ জলপাইগুড়ি (দার্জিলিং)
৬। হাওড়া টু গোয়া
৭। হাওড়া টু আগ্রার তাজমহল
৮। হাওড়া টু শীমলা/মানালি
৯। হাওড়া টু আজমির শরিফ ( রাজস্থান )
১০। হাওড়া টু কাশ্মির

এবং আরো অনেক স্থানে যাওয়া আসা করে। মুলত ইন্ডিয়ানরা এক যায়গা থেকে আর এক যায়গা যেতে ট্রেন ব্যবহার করে থাকে। কারণ ট্রেনের যাতায়াত ব্যবস্থা খুব ভালো এবং ভাড়াও তুলনামূলক কম।

** একটা ট্রেনের সিটের ধরণ :
১। AC ( 1A ) মানে 1 tier
2। AC ( 2A ) 2 tier
৩। AC (3A ) 3 tier
৪। Sleeper

দুরপাল্লা যাওয়ার জন্য একটা ট্রেনের অনেক গুলি বড় বগি থাকে যেমন ২০/২২ টা বগি বা আরো বেশি। আর প্রতিটি ট্রেনের কিছু এসি বগি থাকে যেখানে প্রতি বগিতে ৮ টা করে রুম থাকে। প্রতি রুমে ৮ করে সিট থাকে যদি সিটের ধরণ 3A হয়ে থাকে। 3A তে তিনটি বগি যেমন বগি B1, B2, B3 আর প্রতিটি সিটে আপনি বসে, শুয়ে আরাম করে যেতে পারবেন যেহেতু লং জার্নি তাই ট্রেনের সিটের ব্যবস্থাও খুব সুন্দর। প্রতিটি সিটের সাথে বালিশ, চাদর থাকে যাতে ঘুমানোর সময় ব্যবহার করতে পারেন।

এখানে উপর নিচ করে ৩ টা করে মোট ৬ টা সিট এবং পাশে উপর নিচ করে ২ টা মোট ৮ টি সিট থাকে। আর চলাচলের জন্য ২ ফুটের মত ফাকা জায়গা থাকে। মানে ওই রুমে ওই ৮ জনের বেশি থাকতে পারবে না। প্রতিজনের আলাদা আলাদা সিট। এসি সিটের ভাড়া বেশি হয়ে থাকে।

আর যদি সিটের ধরণ 2A হয় তাহলে প্রতি রুমে ৪ টা করে সিট থাকে আর এক রুম থেকে আর এক রুম দেখা যায় না কারণ পরদা দিয়ে ঢাকা থাকে। সিট থাকে উপর ও নিচ সিস্টেমে অর্থাৎ উপরে পাশাপাশি দুইটা এবং নিচে পাশাপাশি দুইটা মাঝখানে ২ ফুটের মতো ফাকা থাকে নিজেদের চলাচলের জন্য।

আর সিটের ধরণ 1A হচ্ছে একদম প্রথম শ্রেণী। চরম ভি আই পি সিস্টেম। একবার গেলেই বুঝবেন, ট্রেনেও এতো VIP ব্যবস্থা থাকতে পারে।

আপনার মোবাইল বা ল্যাপ্টপে চারজ ও দিতে পারবেন। প্রতি রুমে সেই ব্যবস্থা করা থাকে তবে থ্রি প্লাগ নিয়ে গেলে আপনার জন্য বেটার বা মাল্টিপ্লাগ।

আর নন এসি যে বগি গুলো সেগুলোকে স্লিপার( Sleeper) বলা হয়ে থাকে মানে S1, S2, S3, S4 বগি নামে পরিচিত। এই বগির যে সিট তাতেও আপনি শুয়ে, বসে, আরামে যেতে পারবেন কিন্তু এসি নেই। আর আপনার ব্যাগ বা লাগেজ আপনার ওই রুমের সিটের নিচে রাখবেন। কোন সমস্যা তেমন হয়না, তারপর ও সাবধান রাখবেন। স্লিপারের সিটের ভাড়া কম।

** টিকিটের দাম:
এক এক রুটের ভাড়া এক এক রকম হয়ে থাকে এখানে আমরা হাওড়া টু চেন্নাই ও অন্যান্য রাজ্যে যাওয়ার ভাড়া নিয়ে বিস্তারিত লিখছি ( ১৮/০৩/২০১৭ ইং তারিখ পর্যন্ত আপডেট তথ্য)। সাধারনত এই ভাড়াই ফিক্সড থাকে তবে ২ বছর অন্তর অন্তর সামান্য ভাড়া বাড়ে তবে এই ভাড়া ২০১৭ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত থাকবে নিশ্চিত।

১। AC (1A) ---- ৪৩৫০ রুপির মত প্রতি টিকিট তবে সেটা General প্রাইস ক্যাটাগরিতে মানে আপনি তিন সপ্তাহ বা ৩০ দিন পরে যাবেন কিন্তু আজ টিকিট কেটে রাখতে চাচ্ছেন সেক্ষেত্রে এই প্রাইস।

আর একটা ক্যাটাগরি আছে সেটা হলো Tatkal ক্যাটাগরি। এই ক্যাটাগরিতে টিকিট ম্যাক্সিমাম সময় পাওয়া ইজি। Tatkal ক্যাটাগরি মানে হচ্ছে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে যেতে চান সেক্ষেত্রে একদিন আগেই কাটা সম্ভব তবে ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই যেতে হবে।

Tatkal ক্যাটাগরিতে টিকিটের দাম একটু বেশি হয়ে থাকে। ৩০০/ ৪০০ রুপি এক্সট্রা আ্যড হবে যেহেতু ইমারজেন্সি। আর বাংলাদেশের ৯০% মানুষ এই সিস্টেমে টিকিট পেয়ে থাকে।

২। AC (2A) -- ২৫৪০ রুপি করে প্রতি টিকিট।
৩। AC (3A) -- ১৭৪৫ রুপি করে
৪। AC (Slepper) -- ৬৬৫ রুপি করে
কিন্তু Tatkal এ কাটলে একটু বেশি নিবে। তবে বাংলাদেশ থেকে যারা ইন্ডিয়া যায় তারা ততকালেই বেশি টিকিট পেয়ে থাকে। এটা হচ্ছে ইমারজেন্সি সিস্টেম।

## আসুন কিছু ট্রেনের সময় ও ভাড়া তুলে ধরি:
----------------------------------------------------------------
আপনি যেহেতু নতুন তাই কিছুই জানার তেমন কথা না। টিকিট হলেই হলো সে আপনি স্লিপারে বা এসি যাতে যেতে চান। তারপর ও জেনে রাখা ভালো:

১। গন্তব্য Howra station to Chennai:

ট্রেনের নাম : কলকাতা চেন্নাই মেইল
ছাড়ার সময়: রাত ১১:৪৫ মিনিট বাজার সাথে সাথে ইঞ্জিন চালু হবে আর সাথে সাথে ট্রেন ও চালু হয়ে যাবে। কোন দেরি হবে না যদিনা প্রাকৃতিক সমস্যা না হয়ে থাকে।
পৌছাবে: ২৮ ঘণ্টা ৫ মিনিটে।
( রাত ৩:৫০ মিনিটে )

ভাড়ার তালিকা:
এসি (1A) = ৪৩৬৫ রুপি
এসি ( 2A)= ২৫৪০ রুপি (Tatkal = ৩০৬৫ rupee)
এসি (3A) = ১৭৪৫ রুপি (Tatkal price = ২১০৫ rupee)
স্লিপার = ৬৬৫ রুপি (Tatkal price = ৮৪৫ rupee)

# ট্রেনের নাম: Coromondal express
ছাড়ার টাইম: দুপুর ২:৩০ মিনিটে
পৌছাবে = ২৬ ঘণ্টা ৫ মিনিটে

টিকিটের দাম: ৯৮% একই

এরকম আরো ৩/৪ টা ট্রেন ছেড়ে যায় প্রতিদিন শুধু চেন্নাইতে। তারমানে প্রতিদিন হাওড়া থেকে চেন্নাইতে ৫/৬ টা ট্রেন যাওয়া আসা করে।

........................................................

২। গন্তব্য Howra station to Shimla

ট্রেনের নাম : Kalka Mail
ছাড়ার সময়: রাত 7: 40 মিনিট বাজার সাথে সাথে ইঞ্জিন চালু হবে আর সাথে সাথে ট্রেন ও চালু হয়ে যাবে। প্রাকৃতিক সমস্যা ছাড়া দেরি করে না।
পৌছাবে: ৩২ ঘণ্টা মিনিটে।
( রাত ৪:৩০ মিনিটে )

ভাড়ার তালিকা:
এসি (1A) = 4500 রুপি
এসি ( 2A)= ২615 রুপি (Tatkal = 3010 rupee)
এসি (3A) = 1795 রুপি (Tatkal price = 2210 rupee)
স্লিপার = 680 রুপি (Tatkal price = 870 rupee)
...................................................

৩। গন্তব্য Sealdah station to Delhi

ট্রেনের নাম :শিয়ালদাহ রাজধানি এক্সপ্রেস
ছাড়ার সময়: বিকেল ৪:৫০ মিনিট
পৌছাবে: ১৭ ঘণ্টা ৩৫ মিনিটে।
( সকাল ১০:২৫মিনিটে )

ভাড়ার তালিকা:
এসি (1A) = ৪৮৭৫ রুপি
এসি ( 2A)= ৪১৮৫ রুপি (Tatkal = ৪৩৫০ rupee)
এসি (3A) = ২৮০৫ রুপি (Tatkal = ২৯৮০ rupee)
স্লিপার = ৭৩০ রুপি (Tatkal = ৯৩০ rupee)
..............................................

৪। গন্তব্য Sealdah JN to Agra fort ( তাজমহল )

ট্রেনের নাম: Sealdah Ajmer express
ছাড়ার সময়: রাত ১১:০৫ মিনিটে
পৌঁছাবে: সন্ধ্যা ৬:৩৫ মিনিটে

ভাড়ার তালিকা:
এসি (1A) = ৪১৫০ রুপি
এসি ( 2A)= ২১৪০ রুপি (Tatkal = ২৫৫০ rupee)
এসি (3A) = ১৪৮০ রুপি (Tatkal = ১৯০০ rupee)
স্লিপার = ৫৬৫ রুপি (Tatkal = ৭১৫ rupee)
.............................................

৫। গন্তব্য Howra JN to Vellore ( Katpadi )

ট্রেনের নাম: Kolkata Mysore express
ছাড়ার সময়:বিকেল ৪:১০ মিনিটে
পৌঁছাবে: রাত ১:৫৫ মিনিটে
মোট সময় লাগবে: ২৮ ঘণ্টা
নামতে হবে: Katpadi ( কাটপাডি স্টেশন ) তারপর একটা অটো নিয়ে Vellore CMC Hospital, সময় লাগবে ৩৫/৪৫ মিনিটস।

ভাড়ার তালিকা:
এসি (1A) = ৪৩৫০ রুপি
এসি ( 2A)= ২৫৯০ রুপি (Tatkal = ২৯৮৫ rupee)
এসি (3A) = ১৭৭৫ রুপি (Tatkal = ২১৩৫ rupee)
স্লিপার = ৬৭৫ রুপি (Tatkal = ৮৬৫ rupee)

--------------------------------------------------

৬। গন্তব্য Sealdah to New Jalpaiguri (Darjeling)

ট্রেনের নাম: Sotabdi express
ছাড়ার সময়: দুপুর ২:১৫ মিনিটে
পৌছাবে: রাত ১০:২৫ মিনিটে
সময় লাগবে: ৮ ঘণ্টা ১৫ মিনিট

ভাড়ার তালিকা:
এসি (1A) = ২১৮৫ রুপি
CC = ১৫২৫ রুপি

ট্রেনের নাম: Kachankannya (কাঞ্চনকন্যা)
ছাড়ার সময়: রাত ৮ টা ৩০ মিনিটে
পৌঁছাবে: সকাল ৭:৩০ মিনিটে
সময় লাগবে: ১১ ঘণ্টার মত

ভাড়ার তালিকা:
এসি (2A) = ১২৩০ রুপি (তৎকাল ১৬৫০ রুপি )
এসি (3A) = ৮৬০ রুপি (তৎকাল ১১৭০ রুপি )
স্লিপার = ৩১৫ রুপি (তৎকাল ৪১৫ রুপি )

ট্রেনের নাম: Kachanjanga express ( কাঞ্চনজংগা)
ছাড়ার সময়: সকাল ৬ টা ৩৫ মিনিটে
পৌঁছাবে: সকাল ৭:২৫ মিনিটে
সময় লাগবে: ১২ ঘণ্টা ৫০ মিনিট

ভাড়ার তালিকা:
এসি (2A) = ১২৩০ রুপি (তৎকাল ১৬৫০ রুপি )
এসি (3A) = ৮৬০ রুপি (তৎকাল ১১৭০ রুপি )
স্লিপার = ৩১৫ রুপি (তৎকাল ৪১৫ রুপি )
.................................................

৭। গন্তব্য Dhaka to Kolkata

ট্রেনের নাম: Maitree express
ছাড়ার সময়: সকাল ৮:১০ মিনিটে
পৌঁছাবে: সন্ধ্যা ৭:১০ মিনিটে
সময় লাগবে = ১১ ঘণ্টার মতো
কমলাপুর রেল স্টেশন থেকে ছাড়বে সঠিক সময়ে।

ভাড়ার তালিকা:
চেয়ার = ৬৬০ টাকা
এসি চেয়ার = ১১৩৩ টাকা

--------------------------------------------------------

৮। গন্তব্য Howra to Bangalore station

ট্রেনের নাম: Kolkata Bangalore AC express
ছাড়ার সময়: সকাল ১০:৫৫ মিনিটে
পৌঁছাবে: বিকেল ৪ টায়
সময় লাগবে: ২৯ ঘণ্টা ৫ মিনিট

ভাড়ার তালিকা:
এসি 1A: ৪৮৯৫ রুপি
এসি 2A: ২৮৪০ রুপি
এসি 3A : ১৯৪৫ রুপি ( Tatkal: ২৩৬০ রুপি )

ট্রেনের নাম: Kolkata Bangalore express
ছাড়ার সময়: রাত ৮:৩৫ মিনিটে
পৌঁছাবে: সকাল ৭ টা ১৫ মিনিটে
সময় লাগবে: ৩৪ ঘণ্টা ৪০ মিনিট

ভাড়ার তালিকা:
স্লিপার: ৭৩০ রুপি (তৎকাল ৯৩০ রুপি )
এসি 2A: ২৮১৫ রুপি (তৎকাল ৩৩৩০ রুপি )
এসি 3A : ১৯২৫ রুপি ( Tatkal: ২৩৪০ রুপি )

....................................

৯। গন্তব্য Howra JN to Mumbai

ট্রেনের নাম: Gitanjali express
ছাড়ার সময়: দুপুর ১টা ৫০ মিনিটে
পৌঁছাবে: রাত ৯ টা ২০ মিনিটে
সময় লাগবে: ৩১ ঘণ্টা ৩০ মিনিট

ভাড়ার তালিকা:
স্লিপার: ৭২৫ রুপি (তৎকাল ৯২৫ রুপি )
এসি 2A: ২৭৯০ রুপি (তৎকাল ৩২০০ রুপি )
এসি 3A : ১৯১০ রুপি ( Tatkal: ২৩২৫ রুপি )

ট্রেনের নাম: Kolkata Mumbai Mail
ছাড়ার সময়: রাত ৮ টা ১৫ মিনিটে
পৌঁছাবে: ভোর ৫ টা ২০ মিনিটে
সময় লাগবে: ৩৩ ঘণ্টা ৫ মিনিট

ভাড়ার তালিকা:
স্লিপার: ৭২৫ রুপি (তৎকাল ৯২৫ রুপি )
এসি 2A: ২৭৯০ রুপি (তৎকাল ৩২০০ রুপি )
এসি 3A : ১৯১০ রুপি ( Tatkal: ২৩২৫ রুপি )
এসি 1A : ৪৮৫০ রুপি
.........................................

১০। গন্তব্য Howra JN to Goa Beach

ট্রেনের নাম: Amravathi express
ছাড়ার সময়: রাত ১১টা ৩০ মিনিটে
পৌঁছাবে: বিকেল ৩ টা ৫ মিনিটে
সময় লাগবে: ৪০ ঘণ্টা ৩০ মিনিট

ভাড়ার তালিকা:
স্লিপার: ৭৪০ রুপি (তৎকাল ৯৪০ রুপি )
এসি 2A: ২৯১৫ রুপি (তৎকাল ৩৪৩০ রুপি )
এসি 3A : ১৯৭০ রুপি ( Tatkal: ২৩৯০ রুপি )

১১। গন্তব্য Chennai central to Agra (তাজমহল)

ট্রেনের নাম: Nizamuddin Garib Rath
ছাড়ার সময়: ভোর ৬ টা ১০ মিনিটে
পৌঁছাবে: সকাল ৭ টা ৫৫ মিনিটে
সময় লাগবে: ২৫ ঘণ্টা ৪৫ মিনিট

ভাড়ার তালিকা:
3A (এসি): ১২৬৫ রুপি

যদি General এ পাওয়া যায় তাহলে প্রতি টিকিটের এই প্রাইস কিন্তু না পাওয়া গেলে Tatkal এ কিনতে হবে সেক্ষেত্রে টিকিটের ধরণ অনুযায়ী কিছু বেশি হবে যা পাশেই দিয়ে দিয়েছি। এটা ইন্ডিয়ার রেলওয়ে রুলস। টিকিটে সরাসরি দাম শো করবে।

বাংলাদেশ থেকে যখন কেউ ট্রেনের টিকিট কাটতে চান তখন ই ঝামেলা টা শুরু হয়ে থাকে কারণ ১২৫ কোটি লোকের দেশে টিকিট পাওয়া খুব কঠিন আর তাই আপনাকে প্রতি টিকিটের জন্য ৫০০/৭০০ টাকা বেশি দিতে হয়। কারণ এজেন্ট ছাড়া টিকিট পাওয়া খুব কঠিন আর যদি নিজের মাস্টার কার্ড থাকে তাহলে সম্ভব তাও অনেক প্যারা।

উপরের গুলো দূর পাল্লার ট্রেনের সিটের ধরণ যেমন হাওড়া টু দিল্লি, হাওড়া টু চেন্নাই ইত্যাদি।

দূর পাল্লার ট্রেন গুলো সাধারনত সন্ধ্যায় ও রাতে ছেড়ে যায়। কিছু ট্রেন দুপুরে ছাড়ে তবে তার পরিমান খুব ই কম।

# আপডেট তথ্য ০৫/০৪/১৭ পর্যন্ত

Courtesy: BDindi Traverra
Photo
Wait while more posts are being loaded