Post has attachment

Post has attachment

Post has attachment

Post has attachment
World Water Day-22nd March

World water day is celebrated on 22nd March every year. The purpose of the day is to increase awareness about the importance of water.

Water is life. No living creature including humans, plants, animals, birds, insects can live without water. It is a very precious gift of nature to mankind.

With the growing population of the world, the demand for water is increasing. While the existing water resources are limited. Ineffective water usage can result in the replenishment of water resources.

We all are responsible for the safe water utilization, preservation of water resources and pass this precious natural gift to our future generations.

Photo

Post has attachment
#একজন_অামিনুল_হক_এবং_মাৎস্য_বিজ্ঞান

ন্যাশনাল প্রফেসর ড. এ কে এম আমিনুল হক মৎস্য বিজ্ঞান অনুষদ স্থাপনে আপত্তিকর (obnoxious) সমালোচনার সম্মুখীন হয়েছিলেন

১৯৬১-৬২ শিক্ষা সনে ময়মনসিংহে বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা হয়। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চাকরি ছেড়ে প্রফেসর হক স্যার প্রাণিবিজ্ঞান বিভাগের প্রধান হিসাবে বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে যোগদান করেন একটি নতুন পরিকল্পণা নিয়ে। ফিসারিজ কোর্স চালু করবেন। তখন তিনি নতুন বিশ্ববিদ্যালয়ের মাস্টার প্লান (১৯৬৫-৭৫) প্রণয়নের দায়িত্ব লাভ করেন। ২৪০ পৃষ্ঠার একটি মাস্টার প্লান প্রস্তোত করেন। দু’টি নতুন ফেকাল্টি চালুর প্রস্তাব করা হয়। একটি ফিসারিজ অন্যটি ফরেস্ট্রি’র ওপর। তদানিন্তন পাকিস্তান সরকার ফিসারিজ ফেকাল্টি খোলার অনুমোদন দান করেন যা এ উপমহাদেশে সর্ব প্রথম মৎস্য বিজ্ঞান আনুষদ এবং আমরা যার সুফল ভোগ করছি।

Provincial Planning Authority (PPA) এবং Executive Committee on National Economic Council (ECNEC) সভায় তাঁর সাথে একজন সিনিয়ার প্রফেসর অংশ নেন। তিনি মাস্টার প্লান এক পলক দেখেই বিরল আপত্তিকর মন্তব্য করেন: “You want to have a Faculty of fish and for that you want a department for the head of the fish, a department for the tail of the fish, a department for the back of the fish, a department for the belly of the fish.”
বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন প্রবীন অধ্যাপকের এমন আচরণ তাঁকে কতটা আহত করেছিল মৎস্য বিজ্ঞান আনুষদ সুবর্ণ জয়ন্তী উপলক্ষে তাঁর নিজের লেখা “History of Origin and Development of the First-ever Faculty of Fisheries in the Subcontinent.”তে তা ফুটে উঠেছে।
আসুন আমরা আমাদের এই মহান স্থপতি ন্যাশনাল প্রফেসর ড. এ কে এম আমিনুল হক স্যারের সুস্বাস্থ ও দীর্ঘায়ু কামনা করি
Photo
Wait while more posts are being loaded