Profile cover photo
Profile photo
Ahmed Sharif
1,003 followers -
Ideas R Bulletproof
Ideas R Bulletproof

1,003 followers
About
Posts

Post has attachment
ওমান : নতুন ভূরাজনৈতিক যুদ্ধক্ষেত্র?

ইরানের চাবাহার বন্দরে কৌশলগত অংশীদারিত্ব নিশ্চিত করার পর ভারত দুকম বন্দরে অবস্থান নিয়ে পুরো আরব উপদ্বীপে নিজের কৌশলগত অবস্থান দৃঢ় করতে চাইছে। একই সঙ্গে এই অঞ্চলে ভারতীয় নৌবাহিনীর ভূমিকা বৃদ্ধি করতে চাইছে। ওমানের বন্দর ব্যবহার করতে ভারতীয় নৌবাহিনীর সঙ্গে চুক্তিও রয়েছে। চাবাহার এবং দুকম বন্দর ব্যবহার করে ভারত পাকিস্তানকে ঘিরে ফেলতে চাইছে। গত ১৯ সেপ্টেম্বর ভারতীয় নৌবাহিনীর সাবমেরিন ‘শিশুমার’ এবং গাইডেড মিসাইল ডেস্ট্রয়ার ‘মুম্বাই’ দুকম বন্দরে আসে। একই সময়ে ভারত, ইরান ও ওমানের মন্ত্রীরা নিউইয়র্কে বৈঠক করছিলেন। ভারতীয় নৌবাহিনী ওমানের সঙ্গে নিয়মিত যৌথ মহড়া দেয়, যার সর্বশেষ হয়েছে গত ডিসেম্বরে ভারতীয় নৌবাহিনীর সাবমেরিন ‘শাঙ্কুশ’-এর অংশগ্রহণে। ওমান মধ্যপ্রাচ্যে ভূরাজনৈতিক প্রতিযোগিতার নতুন কেন্দ্র হতে চলেছে কি না, তা দুকমে বিভিন্ন দেশের কৌশলগত বিনিয়োগ এবং সামরিকীকরণই বলে দিচ্ছে। ইরান ও ভারতের অবস্থান যেখানে বেশ শক্ত, সেখানে সৌদি আরব বেশ দেরিতেই ঢুকেছে বলে আপাতদৃষ্টিতে মনে হতে পারে।

http://shampratikdeshkal.com/international/2018/01/11/6650
Add a comment...

Post has attachment
ইরানে সরকারবিরোধী বিক্ষোভ কতটা গুরুত্বপূর্ণ

সৌদি আরবের মতোই ইরানও তার অভ্যন্তরীণ সমস্যায় জর্জরিত। একসময়ে তারা একে অপরের বিরুদ্ধে ঠান্ডা যুদ্ধে লিপ্ত হয়েছে। সৌদিরা যেমন বলছে, তাদের বিরোধীরা ইরানের সমর্থনপুষ্ট; তেমনি ইরানও বলছে, ইরান সরকারের বিরোধীরা পশ্চিমাদের সমর্থনপুষ্ট। উভয়েই এই দ্বন্দ্বকে নিজেদের অভ্যন্তরীণ দুর্বলতা ঢাকতে ব্যবহার করছে।

http://shampratikdeshkal.com/international/2018/01/04/6601
Add a comment...

Post has attachment
সৌদি-ইরান সম্পর্কে নতুন মোড়

রাশিয়া আর ইরানের ঘনিষ্ঠতা অনেক দিনের। ২০১৬ সালের সেপ্টেম্বরে ইরান রাশিয়ার সহায়তায় তার দ্বিতীয় পারমাণবিক চুল্লি তৈরি শুরু করে। ২০১৭-এর আগস্টেও রাশিয়ার উপপ্রধানমন্ত্রী দিমিত্রি রগোজিন ইরান সফর করে দুই দেশের মাঝে সামরিক ও প্রযুক্তিগত সহযোগিতা এগিয়ে নিতে চুক্তি সই করেন। সিরিয়ার যুদ্ধেও রাশিয়া আর ইরান খুব ঘনিষ্ঠভাবে একে অপন্যকে সহায়তা করেছে। কিন্তু সিরিয়া যুদ্ধ শেষে রাশিয়া-ইরানের সখ্যেও কি ভাটা পড়তে লাগল? হুথিদের মিসাইল হামলা এখন মার্কিনদের মতো রুশদেরও সৌদিদের সঙ্গে দাঁড় করিয়েছে। ইরান এখন নিঃসন্দেহে বন্ধু সংকটে রয়েছে। জেরুজালেম ইস্যুতে সৌদিরা ঘুরে গিয়েছে ঠিকই, কিন্তু ইরান কি পারবে এই ইস্যুকে কেন্দ্র করে মুসলিম বিশ্বে বন্ধু জোগাড় করতে? নাকি মুসলিম বিশ্বের বাইরে বন্ধু খুঁজবে ইরান?

http://shampratikdeshkal.com/international/2017/12/28/6551
Add a comment...

Post has attachment
মুসলিম বিশ্বের সামরিক বাহিনীগুলির মাঝে যোগাযোগ গড়ে তোলার ক্ষেত্রে একমাত্র বাধা হচ্ছে দেশগুলির পশ্চিমা রাজনৈতিক ধ্যানধারণা; যা ডিভাইড এন্ড রুল-এর প্রকৃষ্ঠ উদাহরণ। যে সুযোগে জেরুজালেম যেমন ইস্রাইলের রাজধানী হিসেবে ঘোষিত হলো, তেমনি মিয়ানমারের মুসলিমরা, কাশ্মিরের মুসলিমরা, আফগানিস্তান, উইঘুর, ইরাক, সিরিয়ার মুসলিমরা নিধনের শিকার হয়েছে। ...মার্কিন সেনারা হরহামেশা মুসলিম দেশে অবতরণ করেছে; অথচ এরকম অবতরণের পদ্ধতি মুসলিম দেশগুলির নিজেদের মাঝে দেখা যায় না। মার্কিন সেনাদের অধীনে মুসলিম সেনারা জীবন দিয়েছে; কিন্তু কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব না থাকায় মুসলিমদের স্বার্থ রক্ষায় তারা কিছুই করতে পারেনি। মুসলিম সেনারা একক নেতৃত্বের অধীনে থাকলে মুসলিমদের গায়ে হাত দেয়ার সাহস কেউ দেখাতো না।
Add a comment...

Post has attachment
মুসলিম সামরিক বাহিনীগুলির একত্রে কাজ করাটা আসলে কতটা কঠিন?
রো-রো জাহাজের পেট থেকে বের হয়ে আসছে ট্যাংক। পোর্ট সুদান, সুদান; ডিসেম্বর ২০১৭। ২৫শে ডিসেম্বর ২০১৭ ২০১৭ সালের ৬ই ডিসেম্বর। লোহিত সাগরের উপকূলে সুদানের পোর্ট সুদান বন্দরে ভিড়লো সংযুক্ত আরব আমিরাত থেকে আসা একটা জাহাজ। জাহাজটা হলো রো-রো ফেরি ‘জাবাল আলী-৫’। বন্দ...
Add a comment...

Post has attachment
জাপানকে শক্তিশালী করছে উত্তর কোরিয়া?

জাপানের প্রতিটি সামরিক কর্মকান্ডকেই তীক্ষ্ণ দৃষ্টিতে দেখছে চীন। জাপানের নিজস্ব ভূমি থেকে বহুদূরে হামলা করার সক্ষমতা কোরিয়ানদের চেয়ে বেশি ভাবাচ্ছে চীনকে। উত্তর কোরিয়াকে কারণ হিসেবে দেখিয়ে জাপানের পররাষ্ট্রনীতিতে ‘অলিখিত’ পরিবর্তনসমূহ চীনের দৃষ্টি এড়ায়নি। আর জাপানের পররাষ্ট্রনীতির পরিবর্তনে মার্কিন সমর্থন কতটুকু, তা কিছুটা টের পাওয়া যায় নতুন অস্ত্রের জন্য যুক্তরাষ্ট্রের ওপর জাপানের নির্ভরশীলতা বৃদ্ধিতে। উত্তর কোরিয়া ইস্যু আর যা-ই হোক, জাপানকে অস্ত্র ধারণের দিকে ঠেলে দিয়ে চীনকে ব্যালান্স করছে, যা যুক্তরাষ্ট্রকে অখুশি করবে না।

http://shampratikdeshkal.com/international/2017/12/21/6507
Add a comment...

যুক্তরাষ্ট্রের সাথে আলজেরিয়ার সম্পর্ক গোপন কেন?

জেরুজালেম প্রসঙ্গে আলজিয়ার্সের স্টেডিয়ামের ঘটনায় আলজেরিয় সরকারের ক্ষমা প্রার্থনা বলে দিচ্ছে যে আলজেরিয় সরকার শুধু সৌদি আরবকে নয়, বরং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রকেও অসন্তুষ্ট করতে চাইছে না। আবার যুক্তরাষ্ট্রও চাইছে না যে আফ্রিকাতে সামরিক অপারেশন চালাবার জন্যে অতি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকায় থাকা আলজেরিয়াকে পাশে ঠেলে দিতে। মার্কিনীরা চাইছে না আলজেরিয়ার এই গুরুত্বপূর্ণ সামরিক লজিস্টিক ভূমিকা জনগণের মাঝে আলোচনায় আসুক। তাই জেরুজালেম ইস্যুতে সৌদি আরবের সাথে বাকবিতন্ডা এবং আলোচনা বরং মার্কিনীদের জন্যে সুবিধাই বয়ে আনবে। এতে আলজেরিয়াতে মার্কিন সামরিক স্বার্থগুলি ঢাকা পড়ে গিয়ে সুরক্ষিত থাকবে।

http://www.poriborton.com/geo-political-analysis/93597
Add a comment...

Post has attachment
ট্রাম্পের জেরুজালেম ঘোষণা
বিপাকে মুসলিমপ্রধান দেশের নেতৃত্ব

ট্রাম্পের আগের সরকারগুলো জেরুজালেমের ব্যাপারে নিরপেক্ষ নীতিতে থেকেছেন, যার ব্যাপক সমালোচনা করেছেন ট্রাম্প। ট্রাম্প বলেন, তিনি আগের ব্যর্থ নীতি থেকে বেরিয়ে আসবেন। আগের কোনো সরকার বিশ্বের মুসলিম জনগণকে ফিলিস্তিনের ব্যাপারে একত্র করতে চাননি। কিন্তু ট্রাম্প কি এখন সেই পথেই হাঁটছেন? ফিলিস্তিনের প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাসের কথায় মুসলিম নেতৃত্বের এই ভীতির কথাই ফুটে ওঠে। তিনি বলেন, ট্রাম্পের এই ঘোষণা কট্টরপন্থীরা ব্যবহার করে আরবের সমস্যাকে ধর্মীয় সমস্যায় রূপ দেবে। অ্যাসোসিয়েটেড প্রেস (এপি) বলছে, ট্রাম্পের ঘোষণার পরপরই পাকিস্তান, মালয়েশিয়া ও ইন্দোনেশিয়ার রাস্তায় ব্যাপক বিক্ষোভ হয়। কুয়ালালামপুরে শুক্রবারে জুমার নামাজের পর মার্কিন দূতাবাসের বাইরে প্রায় হাজারখানেক মানুষ বিক্ষোভ প্রদর্শন করে, যার নেতৃত্ব দেন মালয়েশিয়া সরকারের ক্রীড়ামন্ত্রী খাইরি জামালুদ্দিন। বিক্ষোভের নেতৃত্বে মন্ত্রীর অবস্থান মাহমুদ আব্বাসের ভীতিরই প্রতিফলন নয় কি?

http://shampratikdeshkal.com/international/2017/12/14/6449
Add a comment...

Post has attachment
মিসরের মসজিদে হামলা : আসল দায়ী কে?

ই হামলার দায় আসলে কার, অবশ্য সেটা নিশ্চিত করে বলা কঠিন। এই হামলার ফলাফল হিসেবে সিসি সরকারও সুবিধা নিতে চাইবে এবং নেবেও। এই হামলা কি সুফিদের ওপর আইএসের হামলা ছিল? নাকি ব্যাপক আর্থসামাজিক ও রাজনৈতিক অস্থিরতার মাঝে ক্ষমতায় টিকে থাকার জন্য মিসর সরকারই এই ঘটনা ঘটিয়েছে? সাধারণ মিসরীয়দের কাছে এই আলোচনার মূল্য কমই। কারণ তাদের চিন্তার মাঝে রয়েছে কী করে গোটা চল্লিশেক জঙ্গি চার-পাঁচটা পিকআপ গাড়িতে চড়ে কালো পতাকা উড়িয়ে কঠিনভাবে সামরিকীকৃত একটি এলাকার মাঝে দিয়ে চলে গেল, আর কেউ তাদের একবারের জন্যও চ্যালেঞ্জ করল না? মিসরীয়দের কাছে আইসিস আর সিসির সরকার একই জিনিস। লস অ্যাঞ্জেলেস টাইমস-এর এক রিপোর্টে কায়রোর রাস্তার এক দোকানির বক্তব্যই ব্যাখ্যা করে দিচ্ছে ব্যাপারখানা। তিনি বলেন, ‘আমরা জানি না কে আসলে এগুলো করছে। কিন্তু আমার মনে হয় আইএস হচ্ছে পুলিশের মাঝেই কিছু মানুষ। এ ছাড়া কার পক্ষে এটা করা সম্ভব?’

http://shampratikdeshkal.com/international/2017/12/07/6398
Add a comment...

Post has attachment
কেন সামরিক শক্তি বাড়াচ্ছে অস্ট্রেলিয়া?

দক্ষিণ চীন সাগরের উত্তেজনাকে পুঁজি করে অস্ট্রেলিয়ায় মার্কিন সেনাদের সংখ্যা আগামী কয়েক বছরে কয়েক গুণ বাড়তে পারে। অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে মার্কিন সেনাদের অবস্থান এই অঞ্চলে মার্কিন কর্মকাণ্ডে অস্ট্রেলিয়াকে জড়িত থাকতে বাধ্য করতে পারে। আর মার্কিনদের ওপর অস্ট্রেলিয়ার সামরিক নির্ভরতা বেড়েই চলেছে। গত ফেব্রুয়ারি মাসে অস্ট্রেলিয়া প্রথম এফ-৩৫ স্টেলথ যুদ্ধবিমান পায়। প্রায় ১৭ বিলিয়ন ডলার খরচে যুক্তরাষ্ট্রের কাছ থেকে ৭২টি এফ-৩৫ যুদ্ধবিমান কিনছে অস্ট্রেলিয়া। অস্ট্রেলিয়ার সামরিকীকরণ এবং এর সামরিক ঘাঁটিগুলোর উন্নয়নের মাধ্যমে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র চীনের সামরিক শক্তিকে পুরোপুরি আটকাতে না পারলেও চীনের জন্য গুরুত্বপূর্ণ নৌপথগুলোকে নিয়ন্ত্রণের মাধ্যমে কৌশলগত দিক থেকে চীনকে নিয়ন্ত্রণে রাখতে সক্ষম হবে।

http://shampratikdeshkal.com/international/2017/11/30/6351
Add a comment...
Wait while more posts are being loaded