Profile cover photo
Profile photo
theBanglaBook.com - Online Bangla Library
292 followers -
www.thebanglabook.com - Online Bangla Library for Free Bangla Book, Magazine, Newspaper, Music Video, Natok, Movie, Funny Clips and Many More.
www.thebanglabook.com - Online Bangla Library for Free Bangla Book, Magazine, Newspaper, Music Video, Natok, Movie, Funny Clips and Many More.

292 followers
About
theBanglaBook.com - Online Bangla Library's posts

Post has attachment
Bangla Film Magazine --->>> Anandalok (12-03-2015)
বাংলা ফিল্ম ম্যাগাজিন -->>> আনন্দলোক (১২-০৩-২০১৫)
সম্পূর্ণ ম্যাগাজিন পড়ার লিংকঃ http://goo.gl/1muwSl


#BanglaBook #BanglaMagazine  
Photo

Post has attachment
মাসুদ রানা সিরিজের নতুন বাংলা বই >> ব্ল্যাক স্পাইডার - কাজী আনোয়ার হোসেন

[Bangla Book >> Black Spider (Masud Rana) by Kazi Anowar Hossain]

সম্পূর্ণ বই পড়ার লিংকঃ http://www.thebanglabook.com/listing.php?user=mybanglabook&listing_id=1753
Photo

Post has attachment
বাংলা বই -->> একজন হিমু কয়েকটি ঝি ঝি পোকা - হুমায়ূন আহমেদ

[Bangla Book ->> Ekjon Himu Koekti Jhin Jhin Poka by Humayun Ahmed]

সম্পূর্ণ বই পড়ার লিংকঃ http://www.thebanglabook.com/listing.php?user=mybanglabook&listing_id=48&p=7
Photo

Post has attachment
মেয়েদের সম্পূর্ণ বাংলা ম্যাগাজিন >> সানন্দা (৩০-০৩-২০১৪)

[Bangla Magazine for Women >> Sananda (30-03-2014)]

সম্পূর্ণ ম্যাগাজিন পড়ার লিংকঃ http://www.thebanglabook.com/listing.php?user=mybanglabook&listing_id=1751
Photo

সাফল্যের জন্য বুদ্ধিমান মানুষ যে পাঁচটি বিষয় মেনে চলে ...

সাফল্যের জন্য মানসিক বুদ্ধিমত্তা সাফল্যের জন্য সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হিসেবে বিবেচনা করা হয়। আর বুদ্ধিমান মানুষ যে বিষয়গুলো মেনে চলে সেগুলো সাফল্যের অন্যতম চাবিকাঠি। ব্যবসা-বাণিজ্যের সাফল্যের ক্ষেত্রে যেমন এ বিষয়টি গুরুত্বপূর্ণ তেমনি ব্যক্তিগত সম্পর্কের ক্ষেত্রেও এ বিষয়গুলো গুরুত্বের সঙ্গে বিবেচনা করতে হয়। বুদ্ধিমান মানুষেরা যে পাঁচটি বিষয় মেনে চলেন, সেগুলো নিয়েই এবারের লেখা। এক প্রতিবেদনে বিষয়টি জানিয়েছে বিজনেস ইনসাইডার।

১. কথা নয় কাজে পরিচয়
বুদ্ধিমানরা কাউকে প্রতিষ্ঠানে নিয়োগ করার আগে অবশ্যই তাদের কাজ বিবেচনা করেন। কথার বদলে কাজের দিকে গুরুত্ব দেওয়া বুদ্ধিমান মানুষের অন্যতম গুরুত্বের বিষয়। তারা কি সময় মেনে চলতে পারে? কল করতে পারে? কোনো ডিল করতে পারে? কথা নয়, বাস্তবে তারা কেমন? ব্যবসায় কিংবা ব্যক্তিগত বিষয়ে কথা বলার কোনো গুরুত্ব নেই।

২. নিজেকে নিয়ন্ত্রণ করা
আমরা সবাই আবেগের দ্বারা নিয়ন্ত্রিত মানুষ। কখনো কখনো ছোট বিষয়গুলো কোনো প্রয়োজন ছাড়াই বড় ঘটনায় মোড় নেয়। বুদ্ধিমান মানুষ জানে কিভাবে নিজেকে থামাতে হয়। কেউ কি আপনাকে কোথাও থামিয়ে দিচ্ছে? কোনো একটা ঝামেলাপূর্ণ বিষয়ে আবদ্ধ হওয়ার আগেই তা থেকে দূরে চলে যেতে সক্ষম হন এ ধরনের মানুষ।

৩. সর্বশেষ লক্ষ্যের দিকে সব সময়ের নজর
যারা জীবনে সাফল্য লাভ করে তাদের সব সময় বিস্তৃত চিত্রের দিকে নজর দেখা যায়। এর অর্থ দাঁড়ায় দৈনন্দিন নানা সমস্যা ও ছোট ছোট বাধা তাদের বিচলিত করতে পারে না। যখন সম্পূর্ণ মনের নজর থাকে লক্ষ্যের দিকে তখন এসব বিষয় নিয়ে নানা স্তরের গ্রাহকদের সঙ্গে আলোচনা করতে সুবিধা হয়। ছোটখাটো সমস্যাপূর্ণ বিষয় তখন আর গুরুত্ব পায় না।
এ বিষয়টা সম্পর্কের ক্ষেত্রেও কার্যকর। যদি একটি দীর্ঘস্থায়ী সম্পর্ক আপনার মূল লক্ষ্য থাকে তখন টুথপেস্টের ঢাকনা সমস্যাকে কোনো বিষয় বলেই মনে হবে না।

৪. বিষাক্ত মানুষদের দূরে সরানো
ভালো ব্যবসা তৈরি করে ভালো উদ্যম। অন্যদিকে নেতিবাচক মানুষ কোনো প্রতিষ্ঠানকে ধ্বংস করে দিতে পারে। কোনো প্রতিষ্ঠানের উদ্যোক্তারা এ বিষয়টি খুব ভালোভাবেই জানে। এ কারণে তারা উদ্যম অপচয়কারী মানুষের সময় থাকতেই দূরে সরিয়ে দেয়। তারা জানে উদ্যমী মানুষের সঙ্গে অলস বা নেতিবাচক চিন্তাধারার মানুষ খাপ খায় না।

৫. ক্রমাগত যোগাযোগ রক্ষা করা
সম্পর্কে কোনো সমস্যা হওয়ার অর্থ এই নয় যে সম্পর্কের সেঁতুবন্ধনটি ধ্বংস করে দিতে হবে। এ বিষয়টি বুদ্ধিমান মানুষ ভালোভাবে জানে বলেই কোনো লেনদেন ব্যর্থ হলে কিংবা সামান্য তিক্ততা সৃষ্টি হলেই তারা সবকিছু ত্যাগ করে না। তারা জানে ভবিষ্যতের কোনো না কোনো সময় তাদের সঙ্গে আবার দেখা হতে পারে। এ কারণে তারা কারো সঙ্গে সামান্য ব্যবসায়িক ব্যর্থতায় সম্পূর্ণ সম্পর্ক নষ্ট করে না। বরং যোগাযোগ রেখেই চলে।

অনেক ক্ষেত্রেই কারো সঙ্গে সম্পর্ক সারাজীবন ধরে চলে না। কিন্তু তার মানে এই নয় যে, ভিন্নমত এলেই সবকিছু বাদ দিতে হবে। বুদ্ধিমান মানুষ এ কারণে সব সময় যোগাযোগ রাখতেই পছন্দ করে।

Post has attachment
সতর্ক হোন ... চীনের তৈরি কৃত্রিম ডিম ঢুকছে বাংলাদেশে !!
চেনার উপায় জানুন ...

ব্যবসায়ী ভাইয়েরা আমাদের অন্তত সুস্থ ভাবে বাঁচতে দিন। অনেকে এটাকে গুজব বলে উড়িয়ে দিচ্ছেন। কিন্তু মায়ানমারের রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন ও ইন্ডিপেন্ডেন্ট মর্নিং নিউজ এজেন্সি সহ বেশ কয়েকটি আন্তর্জাতিক মিডিয়াতে এ বিষয়ে একটি অনুসন্ধানী প্রতিবেদন প্রকাশ করে।

এতে বলা হয়, ইয়াঙ্গুনসহ দেশটির বিভিন্ন এলাকায় সীমান্তের চোরাপথে চীন থেকে কৃত্রিম ডিম পাচার হয়ে আসছে। যা দেখতে অবিকল হাঁস মুরগির ডিমের মতো।

‘২০০৪ সাল থেকেই তৈরি হচ্ছে কৃত্রিম ডিম। যুক্তরাষ্ট্র থেকে প্রকাশিত বিজ্ঞান সাময়িকী ‘দ্য ইন্টারনেট জার্নাল অফ টক্সোকোলজি’তে কৃত্রিম ডিম সম্পর্কে বিশ্লেষণধর্মী তথ্য প্রকাশ হয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, কৃত্রিম ডিমে কোনো খাদ্যগুন ও প্রোটিন নেই। বরং তা মানবদেহের জন্য ক্ষতিকর।

কিভাবে তৈরি হয় কৃত্রিম ডিম ইন্টারনেট থেকে প্রাপ্ত প্রস্তুতপ্রনালীতে দেখা যায়, কুসুম ও সাদা অংশের সমন্বয়ে কৃত্রিম ডিম তৈরি করতে প্লাস্টিকের ছাঁচ ব্যবহৃত হয়। তবে তার আগে কুসম তৈরি করা হয় বিভিন্ন রাসায়নিক পদার্থ দিয়ে। সরাসরি ক্যালসিয়াম ক্লোরাইড ও কালারিং ডাই দিয়ে লাল বা গাঢ় হলুদ রংয়ের কুসুম তৈরি করা হয়। তার ওপর অতি পাতলা স্বচ্ছ রাসায়নিকের আবরণ তৈরি করা হয়। যাতে কুসুম ও সাদা অংশ এক না হয়ে যায়। সাদা অংশ তৈরিতে ব্যবহার হয় ক্যালসিয়াম কার্বনেট, স্টার্চ, রিজিন জিলাটিন ও এলাম।

প্লাস্টিকের ছাঁচ ডিমের সাদা অংশ তৈরি করে তার মাঝখানে ডিমের কুসুম তৈরি করা হয়। শেষ ধাপে ডিমের উপরের শক্ত খোলস তৈরিতে করা হয়। এর জন্য ব্যবহার করা হয় ওয়াক্স এর মিশনখানে ব্যবহার করা হয় প্যারাফিন, বেনজয়িক এসিড, বেকিং পাউডার, ক্যালসিয়াম কার্বাইড। সাদা অংশকে ওয়াক্সের দ্রবণে কিছুক্ষণ নাড়ানো চাড়ানো হয়।

বাইরে থেকে স্বল্প তাপ প্রয়োগ করা হয়। এতেই তৈরি হয়ে যায় হুবহু ডিমের মতো দেখতে একটি বস্তু।

আসল ডিম থেকে নকল ডিম আলাদা করার উপায়ঃ

- কৃত্রিম অনেক বেশি ভঙ্গুর। অল্প চাপে ভেঙ্গে যায়।

- এ ডিম সিদ্ধ করলে এর কুসুম বর্ণহীন হয়ে যায়। ভাঙ্গার পর আসল ডিমের মতো কুসুম এক জায়গায় না থেকে চারপাশে ছড়িয়ে পড়ে।

-কৃত্রিম ডিম আকারে আসল ডিমের তুলনায় সামান্য বড় এবং এর খোলস মসৃণ।

ইন্টারনেট-এর বিভিন্ন সাইট থেকে আরো জানা যায়, চীনে তৈরী হওয়া এসব কৃত্রিম বা নকল ডিম এক কথায় বিষাক্ত। কৃত্রিম ডিম তৈরিতে ব্যবহৃত রাসায়নিক উপাদান ক্যালসিয়াম কার্বনেট, স্টার্চ, রেসিন, জিলেটিন মানবদেহের জন্য খুবই ক্ষতিকর। দীর্ঘদিন এ ধরনের ডিম খেলে স্নায়ুতন্ত্র ও কিডনিতে সমস্যা হতে পারে। ক্যালসিয়াম কার্বাইড ফুসফুসের ক্যান্সারসহ জটিল রোগের কারণ।
Photo

Post has attachment
New Look .......   :)
Photo

Post has attachment

Post has attachment

Post has attachment
Wait while more posts are being loaded