Profile cover photo
Profile photo
Kausar Ahmed
55 followers
55 followers
About
Kausar's posts

অনেক কথা ছিল বলার
বলা হলো না।
অনেক কথা ছিল জানার
জানা হলো না।
অনেক কষ্ট ছিল মনে
দেখানো গেলো না।
অনেক স্বপ্ন ছিল মনে
সত্যি হলো না।
অনেক কান্না ছিল বুকে
কেউ দেখলো না।
অনেক হাসি ছিল মুখে
হাসা হলো না।
অনেক গান ছিল শোনার
শোনা হলো না।
অনেক গান ছিল গাওয়ার
গাওয়া হলো না।
অনেক জল ছিল চোখে
কেউ মুছে দিলো না।
অনেক বাঁধন ছিল হৃদয়ে
বাঁধা হলো না।
অনেক তৃষ্ণা ছিল ঠোটে
কেউ জল দিল না।
অনেক আগুন ছিল বুকে
কেউ নিভালো না।
অনেক মায়া ছিল মনে
জড়ানো হলো না।
অনেক পথ ছিল বাকি
হাটা হলো না।
অনেক নদী ছিল সামনে
পেরোনো গেল না।
অনেক পাহাড় ছিল উঁচু
ওঠা হলো না।
অনেক সাধ ছিল কাছে থাকার
থাকা হলো না।
অনেক ভালোবাসা ছিল মনে
কেউ বুঝলো না।

আমার আকাশে কেন মেঘ জমেছে
বাতাস কেন স্তব্ধ হয়ে আছে
আমি কেন শ্বাস নিতে পারছিনা
চারিদিকে কেন অন্ধকার ঘিরে রেখেছে?
শুধু হাহাকার আর হাহাকার
না পাওয়ার বেদনায় চারিদিকে
যেন মরুভুমি হয়ে গেছে।
হৃদয়ে জমে থাকা বরফগুলো গলে
ঝরে পড়ছে লাল রক্ত কনিকার সাথে।
চোখের চারি কোনে প্রবাহমান ঝর্ণা
ঝরছে নদীর স্রোতের মত।
অমাবষ্যার রাত যেন আজই
পৃথিবীটাকে গ্রাস করে ফেলছে।
চারিদিক থেকে আসমানটি যেন
মাটির সাথে মিশে যাচ্ছে।
ঝিঝি পোকার শব্দ কিসের যেন
আভাস দিয়ে যাচ্ছে কানে।
সবই কি তাহলে পরপারের ডাক?
নাকি তিলে তিলে ক্ষয়ে যাওয়ার আওয়াজ?
উপলদ্ধি করার ক্ষমতাও আজ হারিয়ে ফেলেছি।
কোথাও যেন গড়মিল হয়ে গেছে
মিলছেনা জীবনের হিসাব নিকাশ।
সবই বার বার কিছু প্রশ্নের সম্মুখীন করছে..
আমার শরীর কেন আজ নিস্তেজ হয়ে যাচ্ছে
আমার হৃদয় কেন বদ্ধ ঘরে আবদ্ধ হয়ে আছে
মুক্তির আশা কেন আজ ক্ষীণ হয়ে আসছে
কেন চোখ দু”টি স্বপ্ন দেখতে ভুলে যাচ্ছে?
চারিদিকে শুধু কোকিলের করুন সুর ভাসছে
চলে যাওয়ার বেদনাগুলো আজ যেন
সবাইকে স্মরণ করিয়ে দিচ্ছে।
আমি চলেও যাব কোন এক বিকেলের সাথে
বিলীন হয়ে যাব অন্ধকারে মিশে,
শুধু কিছু প্রশ্ন রেখে যাব এ পৃথিবীর মাঝে
কেন স্বার্থের জন্যে কিছু মানুষের স্বপ্ন
বালুর বাধের মত ভেঙ্গে মাটিতে মিশে যায়?
কেন কিছু মানুষের সুখের জন্যে
কিছু মানুষেকে এভাবে হাটতে হয়
অজানা কোন এক দূরন্ত পথের সাথে?

হৃদয়ের পার্লামেন্টে আজ
স্পীকার নেই।
মনের জনসভায় নেই কোন বক্তা।
অন্তরে হরতাল
ডেকেছে বিরোধীদল।
ভালবাসার ভোট
কেন্দ্রে ভোট
পেয়েছি একটি।
....তাও জাল

ইচ্ছে করে ভোর বেলায় মুঠোফোনে ক্ষুদেবার্তায় কেউ লিখুকঃ
এত দেরি করে ঘুম ভাঙলো আপনার?

কিংবা গভীর রাতেঃ
রাত জেগে থাকতে থাকতে কি ক্লান্ত লাগে না?

কিংবা ,
বাঁধভাঙা জোছনায় আবদার করবেঃ
আঁধারে দম বন্ধ হয়ে আসছে , একটু হাতটা ধরবে?

ইচ্ছে করে কারো নরম কন্ঠে সকাল হোক।
কিংবা
আধখাওয়া চায়ের কাপে কেউ প্রচন্ড আগ্রহে চুমুক দিক।

ইচ্ছে করে আমায় কেউ প্রচন্ড বকা দিক , শাসন করুক , কানমলা দিক।
রাগ করে খামচি দিয়ে নখের ছাপ বসিয়ে একটু রক্তও না হয় খসিয়ে নিয়ে যাক।
তবু
হাতটা ধরে রাখুক।

ফোনের এপাশে মন খারাপ করে চুপ করে থাকলে ওপাশের মানুষটার চুপসে যাওয়া মুখ শুকনো ঠোঁটের মেকি হাসির বিপরীতে ওপাশের ভেজা চোখটা কে কল্পনা করতে ইচ্ছে করে।

ইচ্ছে করে একজনকে নিয়ে জীবনের গল্পটা নতুন করে লিখি। খুব করে ভালোবাসি।

ইচ্ছে করে কাউকে নিজের চেয়ে বেশি ভালোবাসায় আঁকড়ে ধরে রাখি।বুকের ভেতর আগলে রাখি।

স্পর্শের বৃত্তের ভিতর অস্পর্শী অনুভূতিগুলোকে বাইরে থেকে ছুঁয়ে দেই হৃদস্পন্দনের প্রতিটা ধ্বনিতে।

কারো ভালোবাসি শব্দে কাঁচা ঘুম ভেঙে আড়মোড়া ভেঙে কাঁথাটা আরো শরীরে আরো একটু জড়িয়ে বলিঃ কি বলছো , শুনতে পাই নি তো !

গভীর রাতে যখন শহরের সব আলো নিভে যায় , ভূতের মত নিভৃত শহরের নির্জনতা ভাঙুক মুঠোফোনেঃ
রিংটোনে প্রিয় রবীন্দ্রসংগীতটা বাজুকঃ
তুই ফেলে এসেছিস কারে মন
মনরে আমার ...

ফোন ধরতেই কেউ বলুকঃ
কফি খাবে না কোল্ড কফি ?

উত্তর দিতেই বাইরে থেকে টোকা পড়বে দরজায়।

দুজন বাইরে যাবো।

প্রচন্ড শীতে যখন তার ঠোঁটের কোন শুকিয়ে যাবেঃ
আলতো করে কোমর ছুঁয়ে ঠোঁট ভিজিয়ে দিবো।

তখন যদি চোখ বন্ধ করে নিশ্বাস থামিয়ে দিয়ে ঠোটের কোন ফুটে ওঠে সতেজ হাসি।
হাতে ধরিয়ে দিবো ছোট্ট চিরকুটঃ
ভালোবাসি , কেবল তোমাকেই ।

আদুরে গলায় হয়তো উত্তর করবেঃ
আমি একটুও ভালোবাসি না , ফের যদি ঠোট ছুঁয়ে দাও ছাদ থেকে এক ধাক্কা দিয়ে ফেলে দিবো।

তারপর হয়তো জড়িয়ে ধরে রাখবে। শার্টের বুক ভিজে যাবে নোনা জলে , লেপ্টে যাবে কাজল।

দুহাতে গাল ধরে চোখে চোখ রেখে বলবোঃ
ঈশ পাগলী , এই শীতে বৃষ্টি নামছে। আর তোর চোখ ভিজলে আমার তো আরো ঠোঁট ছুয়ে দিতে ইচ্ছে করে।

চোখ বাঁকিয়ে বলবেঃ
বাহ । আমি বারন করেছি ?

আমার পায়ের ওপর বৃদ্ধাঙ্গুলিতে ভর করে ছুঁয়ে দিতে চাইবে নাকের অগ্রভাগ।

হাতটা ছেড়ো না।
শক্ত করে ধরে রাখো।
হাতটা ছেড়ো না।
ধরে রাখো।
আমি তোমার হাত ধরে আকাশ দেখতে চাই ,
দেখতে চাই জোছনা ,
সমুদ্রের বিশাল ঢেউ।

মাঝে মাঝে ইচ্ছে করে ভালোবাসি।
কিন্তু
পরক্ষণে মনে পড়েঃ
তুমি নেই!
আসবেও না।
তোমার আসার সময়ও হবে না।

উত্‍সর্গঃ বুকের ভেতর ঊনত্রিশটা কশেরুরা অভেদ্য দুর্গে লুকিয়ে রাখা কল্পনার মায়াবতীকে।

আকাশের নীল দেখেছো কখনো মিথিলা?
কতোটা গভীর আর কতোটা কষ্টের…
 
ঐ নীলের মধ্যেই লুকিয়ে আছে ভালোবাসতে না পারার কষ্ট…
ভালোবেসে কাঁদতে না পারার কষ্ট, মিথিলা।
 
ঐ নীলের বুকে আদুরে মেঘের ভেসে চলা
আর নীলে ভর করে উড়ে যাওয়া পাখির দল
কি অদ্ভুত সুন্দর তাই না!
আচ্ছা মিথিলা, সমুদ্রের নীল কখনো দেখেছো তুমি?
 
কতো গভীর সে নীল,
কতো কষ্টের সে বিশালতা…
বিশালতার ভালোবাসায় বাধঁতে না পারার কষ্ট…
ভালোবেসে ভাসিয়ে নিয়ে যেতে না পারার কষ্ট।
 
ঐ বিশালতাই ধারণ করে জলজ সব আবেগ
সর্ন্তপনে হয়তো প্রেমও…
মিথিলা, দেখো ঐযে লাল গোলাপ
ঐতো, ওখানে সবুজের উপর টকটকে কুড়িঁ
ওর রংটা দেখেছো?
 
ওটা লাল নয় মিথিলা, ওটা আগুন…
বুকের ভিতরে জ্বলে উঠা ভালোবাসার আগুন
রক্তরঙা বারুদ।
কিন্তু, সবুজ-কালচে ঐ কাঁটা
আর হলদে রেণু…
 
দেখো মিথিলা দেখো…নদীর ওপাশের ঐ কাশবনটা দেখো…
কত শুভ্র আর স্নিগ্ধ
পাশে মেঘের ছায়ায় ভেসে চলা পালের সারি…
 
ওটাতো বেদের দল…
বীণের সুরে, টেনে নেয়া বিষ
ফিরিয়ে দিতে পারেনা লক্ষিন্দরের জীবন
তবে কেন এই ভেসে চলা ?
ভালোবাসার বিষ কুড়ে কুড়ে খায় জীবনকে,
জীবনের স্বপ্নকে
তবে কেন সেই ভালোবাসাকে আহ্বান?
বলতে পারো ?
 
আমি কিছু জানিনা, জানতে চাইও না
শুধু বলি ভালোবাসা দাও…
উষ্ষনতার ছোঁয়া বোলাও আমার ওষ্ঠে
বিনিময়ে শুষে নেবো তোমার লোনা জল
এনে দেবো স্বপ্নের রং
আর একটি, শুধূ একটি বার বলবো…
ভালোবাসি ভালোবাসি ভালোবাসি মিথিলা
শেষ প্রশ্বাসের সাথে…

I Love You Methila...

শুনেছি ভালোবাসা নাকি প্রাণ খুলে
হাসতে শিখায় , আমিও হাসিয়েছি তোমায়
তুমি প্রাণ খুলে হেসেছিলে সেদিন গুলোতে ,
তবে তোমার ভালোবাসা কেন আমায় কান্না করাল
কি অদ্ভুত ভালোবাসা তোমার
তুমি হাসতে পেরেছ আর আমার জন্য
দিয়ে গেছ কিছু অশ্রু ফোঁটা
জানো কষ্ট নেই
তোমাকে হাসাতে পেরেছি , বিনিময়ে না হয়
তুমি আমায় দুঃখ দিলে তা তে কি
তুমি তো সুখী _____
জোড়ে দেয়া স্বপ্ন গুলো কে মারিয়ে গেছ তুমি
ওরা আজো চিৎকার করে
ওদের বুক ফাটা কান্না কেউ দেখে না
কারণ ওরা যে আমার বুকের পাঁজরে আঁকড়ে ধরে কাঁদে ,
আমি বোঝাতে পারিনা এই অবুঝ স্বপ্ন গুলো বোঝে না যে
তুমি এক রংধনুর আলোকিত আভা ছিলে আমার জীবনে ,
বাস্তবতায় তুমি এক মরীচিকা __
ভেবো না আমি তোমার মত করে ভুলে যাবো না সব
আমি ভেঙ্গে যাওয়া স্বপ্ন গুলো যত্ন করে তুলে রাখবো আমার মনের ছোট্ট কোঠিরে
যদি কোন দিন তুমি ফিরে এসো আমি আবার তোমার হাতে তুলে দিবো
বলবো না রাঙিয়ে দাও তুমি আমার স্বপ্ন গুলো
বলবো নিয়ে যাও তোমার রেখে যাওয়া শেষ চিহ্ন গুলো
আমি যে আর পারছি না ____________

এইবার হাত দাও, টের পাচ্ছো আমার অস্তিত্ব ? পাচ্ছো না ?
একটু দাঁড়াও আমি তৈরী হয়ে নিই ।
এইবার হাত দাও, টের পাচ্ছো আমার অস্তিত্ব ? পাচ্ছো না ?
তেমার জন্মান্ধ চোখে শুধু ভুল অন্ধকার । ওটা নয়, ওটা চুল ।
এই হলো আমার আঙ্গুল, এইবার স্পর্শ করো,--না, না, না,
-ওটা নয়, ওটা কন্ঠনালী, গরলবিশ্বাসী এক শিল্পীর
মাটির ভাস্কর্য, ওটা অগ্নি নয়, অই আমি--আমার যৌবন ।

সুখের সামান্য নিচে কেটে ফেলা যন্ত্রণার কবন্ধ--প্রেমিক,
ওখানে কী খোঁজ তুমি ? ওটা কিছু নয়, ওটা দুঃখ ;
রমণীর ভালোবাসা না-পাওয়ার চিহ্ন বুকে নিয়ে ওটা নদী,
নীল হয়ে জমে আছে ঘাসে,--এর ঠিক ডানপাশে , অইখানে
হাত দাও, হ্যাঁ, ওটা বুক, অইখানে হাতা রাখো, ওটাই হৃদয় ।

অইখানে থাকে প্রেম, থাকে স্মৃতি, থাকে সুখ, প্রেমের সিম্পনি ;
অই বুকে প্রেম ছিল, স্মৃতি ছিল, সব ছিল তুমিই থাকো নি ।

Post has attachment
Photo

Post has shared content
I miss having someone that cares about what I did yesterday, what I'm doing right now, and what I'm going to do tomorrow.....I love my Pecha & Mowa...Miss u

Logic Software BD.
Wait while more posts are being loaded