Profile cover photo
Profile photo
Pirganj24
17 followers -
Online Newspaper
Online Newspaper

17 followers
About
Posts

Post has attachment
গত শুক্রবার ০৮ সেপ্টেম্বর বিকাল ৩টায় রংপুরের পীরগঞ্জে কিছু স্বপ্নবাজ তরুনদের নিয়ে কছিমননেসা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে এক আয়োজনের মধ্য দিয়ে যাত্রা শুরু করলো পীরগঞ্জ ইয়ুথ ফোরাম (PYF)। বিভিন্ন পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের, স্নাতক ও স্নাতকোত্তর পর্যায়ে অধ্যয়নরত শিক্ষার্থী, অতিথি, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ের শিক্ষার্থী এবং গণমাধ্যম কর্মীদের উপস্থিতিতে ‘স্বপ্ন দেখি, স্বপ্ন ছুঁই’ এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে আত্মপ্রকাশ করে এই সংগঠনটি।
Add a comment...

Post has attachment

Post has attachment
পীরগঞ্জে ২৯ কোটি টাকার কাজ ১৯ কোটি টাকায়!
দুর্নীতি, নিম্নমানের সামগ্রী ব্যবহার, ধ্বসে যাচ্ছে সড়ক!

রংপুর সড়ক ও জনপথ বিভাগের অধীনে সাদুল্লাপুর-মাদারগঞ্জ-পীরগঞ্জ-নবাবগঞ্জ সড়কের বর্ধিতকরণ ও কার্পেটিংয়ের কাজ শেষ না হতেই সড়কটির অনেক অংশে ফাঁটল ধরেছে, ধ্বসেও গেছে। সড়কটির টেন্ডারে প্রাক্কলিত মুল্য ছিল প্রায় ২৯ কোটি টাকা। কিন্তু প্রায় ১০ কোটি টাকা কমে ১৯ কোটি টাকায় কাজটি করায় শুরু থেকেই দুর্নীতির আশ্রয় নিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া যাচ্ছে। রংপুর সড়ক ও জনপথ বিভাগ (সওজ) ইতিমধ্যেই উল্লেখিত সড়কটির ৮৫ ভাগ কাজ সম্পন্ন দেখিয়েছে। যদিও নিম্নমানের সামগ্রী ব্যবহার ও কাজে ঘাপলার ফলে সড়কের বেহালদশা হয়েছে।

রংপুর সওজ সুত্র জানায়, রংপুর সড়ক জোনের অধীনে গাইবান্ধা, রংপুর ও দিনাজপুর জেলার সাদুল্লাপুর-মাদারগঞ্জ-পীরগঞ্জ-নবাবগঞ্জ সড়কটি আঞ্চলিক মহাসড়কে উন্নীতকরণে এডিপি’র অর্থায়নে ২ টি গ্রুপে ৬৮ কোটি টাকা বরাদ্দে টেন্ডার আহ্বান করা হয়েছিল। ১নং গ্রুপে ১ কি.মি. থেকে ২৪ কি.মি. এবং ২নং গ্রুপে ২৪ কি.মি. থেকে ৪৫ দশমিক ৩’শ কি.মি. পর্যন্ত এলাকা বলে জানা গেছে। ওই টেন্ডারে উল্লেখিত সড়কের উভয়পার্শে বর্ধিতকরণ, সাববেজ (খোয়া-বালির মিশ্রণ), বেস্ট টাইপ-১ (পাথর-বালির মিশ্রণ) ও কার্পেটিংয়ের কাজ হওয়ার কথা। ২নং গ্রুপে ২১ দশমিক ৩’শ কি.মি. সড়কের কাজে প্রাক্কলিত মুল্য ছিল প্রায় ২৯ কোটি টাকা। সড়কটির পীরগঞ্জের উজিরপুর থেকে ওয়াজেদ ব্রীজ পর্যন্ত সাড়ে ১৩ কি.মি. এবং দিনাজপুরের নবাবগঞ্জ উপজেলা পর্যন্ত ৭ দশমিক ৮’শ কিমি রয়েছে। সড়কটির উভয়পাশে ৯ কি.মি. বর্ধিত করে মোট ১৮ ফুট প্রশস্ত করা হবে।

ওই সড়কের দুটি গ্রুপে দাখিলকৃত টেন্ডারে বিধি উপেক্ষা করে ১০ শতাংশের বেশী নিম্নদর দেয়ায় ১নং গ্রুপের টেন্ডার বাতিল করে সেটির রি-টেন্ডার করা হয়েছিল। কিন্তু ২নং গ্রুপে প্রায় ২৩ শতাংশ নিম্ন দরে টেন্ডার দাখিল করা হলেও সেটির রি-টেন্ডার না করে বিশেষ কারণে ময়মনসিংহের মেসার্স শামীম এন্টারপ্রাইজকে (সাদল্লাপুর-মাদারগঞ্জ-পীরগঞ্জ-নবাবগঞ্জ সড়কের ২নং গ্রুপে ২৯ কোটি টাকা) কার্যাদেশ দেয়া হয়। এ নিয়ে রংপুরে ঠিকাদারদের মাঝে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছিল। মেসার্স শামীম এন্টারপ্রাইজ কাজটির কার্যাদেশ পাওয়ার পর থেকেই নিম্নমানের নির্মাণ সামগ্রী ব্যবহার, কাজে ঘাপলাসহ নানান অনিয়মের আশ্রয় নেয় বলে অভিযোগ রয়েছে।

বর্তমানে রংপুর সওজ’র তত্ত্বাবধানে ২নং গ্রুপে সড়কটিতে কার্পেটিংয়ের কাজ চললেও মোনাইল মোড়ের পশ্চিমে, ছাতুয়া গ্রামে, টিওরমারী (ভূমি দুস্য মানিক মন্ডলের বিশাল পুকুর সংলগ্ন) অনেক স্থানে সড়কে ধ্বসে গেছে, ফাঁটলও ধরেছে। ওই কাজের ব্যাপারে হরিনা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক হেলালুর রহমান, মোনাইল (জয়নন্দনপুর) শফিকুল ইসলামসহ কয়েকজন বলেন, ঠিকাদার শুরু থেকেই কাজে ঘাপলা করায় আমরা অভিযোগ করলে ওই ঠিকাদার অফিসের কর্তাবাবুদেরকে ম্যানেজ করে সড়কের কাজ করছে।

সংশ্লিষ্ট একটি সুত্র জানায়, ২নং গ্রুপের ২৯ কোটি টাকার কাজটিতে প্রায় ২৩ শতাংশ নিম্নদরের কারণে মোট ৬ কোটি ৬৭ লাখ টাকা কমে ২২ কোটি ৩৩ লাখ টাকায় কাজটির মুল্য দাঁড়ায়। এরমধ্যে ১৩ শতাংশ টাকা ভ্যাট-ট্যাক্স বাদ দেয়ায় আরও ২ কোটি ৯০ লাখ ২৯ হাজার টাকা কমে গিয়ে ১৯ কোটি ৪২ লাখ ৭১ হাজার টাকা হয়। প্রায় সাড়ে ১৯ কোটি টাকা দিয়েই ২৯ কোটি টাকার সমমানের কাজ করতে হবে। এরমধ্যেও রংপুর সওজ এর অফিস খরচ ২ পারসেন্ট রয়েছে বলে সুত্রটি দাবী করেছে। যা উৎকোচ হিসেবে পরিগণিত। ওই উৎকোচের পরিমানও প্রায় ৩৯ লাখ টাকা। এ সব খরচ মিটিয়ে ঠিকাদারকে লাভ কিংবা ২৯ কোটি টাকা সমমানের কাজ সওজ কর্তৃপক্ষকে বুঝিয়ে দিতে হবে বলে সুত্রটি জানিয়েছে। সুত্রটি আরও জানায়, বেস্ট টাইপ-১ কাজের ক্ষেত্রে পাথর এবং বালির মিশ্রনের পরিমাণ ৭ অনুপাত ৩। কিন্তু এর উল্টো অনুপাতে পাথর-বালি মিশ্রন করে সড়কে দেয়া হয়েছে। পাশাপাশি সাববেজ এর ক্ষেত্রে খোয়া-বালিও ৭ অনুপাত ৩। কিন্তু ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানটি ওই অনুপাতের ক্ষেত্রেও উল্টোটা করেছে বলে অভিযোগ রয়েছে। সেইসাথে সড়কের উয়পাশে বর্ধিতকরণের অংশ ভালভাবে রোলারিং না করায় অনেকস্থানে দেবে যাওয়ায় ওইসব স্থানে পানি জমে আছে।

কাজটির তদারকি কর্মকর্তা রংপুর সওজ’র উপসহকারী প্রকৌশলী এখলাস হোসেন জানান, ‘প্রায় ২৩ পারসেন্ট লেস (নিম্নদর), ভ্যাট-ট্যাক্স বাদ দিয়ে ১৯ কোটি টাকায় কাজ হলেও চুক্তি অনুযায়ীই ঠিকাদারকে কাজ করতেই হবে। আমরা যথাযথভাবে কাজ বুঝে নেওয়ার চেষ্টা করছি। কাজের মান অবশ্যই ভাল হচ্ছে।’ প্রায় ১০ কোটি টাকা কম হলেও কিভাবে এই কাজ সম্পন্ন করবে এমন প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, ‘ঠিকাদারের হয়তো লাভ থাকবে না। তবে এতে কোয়ানটিটি আর কোয়ালিটির ঘাটতি হবে না।’ তিনি আরও বলেন, পিপিআর এর নিয়ম অনুযায়ী সর্বনিম্ন রেসপনসিভ দরদাতাকে কাজ দেয়া হয়। এতে আমাদের করার কিছুই নেই।

রংপুর সওজ’র নির্বাহী প্রকৌশলী মাহবুবুল আলম খান বলেন, আমি শুনেছি, বেশকিছু স্থানে সড়কটি ধ্বসে গেছে। এখনো কাজ চলছে। ঠিকাদার ঠিক করে দিবে। যেভাবেই কাজ হোক, সড়কটির ৩ বছর ডিফেক্ট লায়াবিলিটি পিরিয়ড রয়েছে। এরমধ্যে সড়কের কোন ক্ষতিসাধিত হলে ঠিকাদারকেই মেরামত করে দিতে হবে।

পীরগঞ্জের একজন প্রথম শ্রেনীর ঠিকাদার নাম না প্রকাশের শর্তে পীরগঞ্জ টোয়েন্টিফোরকে বলেন, ২৩ পারসেন্ট লেস আর অন্যান্য খাতের যে খরচ হয়েছে। তাতে ঠিকাদারকে অবশ্যই দুর্নীতির আশ্রয় নিতে হয়েছে। যে কাজ হয়েছে, তা বলার মতো না। নিম্নমানের সামগ্রী ব্যবহার আর ফাঁকি দেয়ায় সড়ক ধ্বসে যাচ্ছে।
Add a comment...

Post has attachment
ইংল্যান্ড, শ্রীলঙ্কার পর এবার জয় অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে। অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে প্রথম টেস্টে স্মরণীয় জয় তুলে নিলো বাংলাদেশ। ঢাকার মিরপুরে শেরে বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে অস্ট্রেলিয়াকে হারিয়ে জিতে গেলো বাংলাদেশ।

মিরপুর টেস্ট শুরুর আগেই আত্মবিশ্বাসী ছিল বাংলাদেশ। তামিম ইকবাল, সাকিব আল হাসান ও মুশফিকুর রহিমের মতো সিনিয়র খেলোয়াড়রা জানিয়েছিলেন টেস্ট সিরিজ জয়ের সম্ভাবনার কথা। শেষ পর্যন্ত সেই লক্ষ্যেই এগিয়ে যাচ্ছে স্বাগতিকরা। সাকিব আল হাসানের অলরাউন্ড নৈপুণ্য ও তামিম ইকবালের জোড়া অর্ধশতকে প্রথম টেস্টে ২০ রানে অস্ট্রেলিয়াকে হারিয়ে জিতেছে বাংলাদেশ।

ম্যাচসেরার পুরস্কার জেতা সাকিব বলেছেন, ‘ঘরের মাঠে আমরা বিশ্বাস করি, যে কাউকে হারাতে পারি, সেটা করেও দেখিয়েছি। গত দুই বছরের পারফরম্যান্স থেকেই আমাদের মনে এই বিশ্বাস এসেছে। কেউ হয়তো আমাদের ওভাবে খেয়াল করেনি, কিন্তু আমরা চুপিসারেই নিজেদের কাজটা করেছি।’

ডেভিড ওয়ার্নার আর স্টিভ স্মিথ—অস্ট্রেলিয়ার সবচেয়ে সেরা দুই ব্যাটসম্যান। ওয়ার্নার তো আগের দিন বিকেলেই ৭৫ রানে অপরাজিত ছিলেন। এই দুই ব্যাটসম্যান দিনের প্রথম ঘণ্টাতেই তুলে নিলেন ৬৫ রান। বাংলাদেশের বিপক্ষে পাওয়া আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে প্রথম ফিফটি সেঞ্চুরিতে (১১২) পরিণত করতে বেশি সময়ও নিলেন না। কিন্তু বল হাতে বাংলাদেশের সাকিব আল হাসানের একের পর আঘাতে বিপর্যস্ত হয়ে পড়ে অস্ট্রেলিয়া।

সাকিব আল হাসান পাঁচ উইকেট তুলে নেন। ডেভিড ওয়ার্ণারকে ফিরিয়ে দেবার পর হুড়মুড় করে ভেঙ্গে পড়ে অস্ট্রেলিয়ার ব্যাটিং লাইন আপ। ৪২ রানের মধ্যেই ৬ উইকেট হারায় অস্ট্রেলিয়া। চতুর্থ দিনে সাকিব আল হাসানের পাঁচ উইকেট ছাড়াও তাইজুল ইসলাম তিনটি এবং মেহেদি হাসান মিরাজ নিয়েছেন দুটি উইকেট।

জেতার পর মুশফিক এই ম্যাচটিকে উল্লেখ করলেন ‘ঐতিহাসিক’ হিসেবে, ‘এটা তো অনেক বড় একটা অর্জন। এখন বলতে পারি এই ম্যাচটা ঐতিহাসিত ছিল। এটাকে আমি অনেক বড় অর্জন বলব। এই জয়গুলো আমাদের মতো দলকে আরও আত্মবিশ্বাসী করে তুলে। এই ধরনের অভিজ্ঞতা সবসময়ই কাজে লাগে। আবার যখন এই ধরনের পরিস্থিতিতে পড়ব, তখন আরও ভালোভাবে সামলাতে পারব।’

এই জয়ের নায়ক সাকিবই। ক্যারিয়ারে দ্বিতীয়বারের মতো ১০ উইকেট পেলেন। নিউজিল্যান্ডের কিংবদন্তি ক্রিকেটার স্যার রিচার্ড হ্যাডলির পর দ্বিতীয় ক্রিকেটার হিসেবে এক টেস্টে ১০ উইকেট ও ন্যূনতম ৫০ রান করার কীর্তিটা নিজের করে নিলেন। কিন্তু ব্যক্তিগত সেই অর্জন ছাপিয়ে অস্ট্রেলিয়াকে হারিয়ে দুর্দান্ত এক দলগত অর্জন বাংলাদেশের।
Add a comment...

Post has attachment
চিরকালের জন্য স্তব্ধ হলো স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের কিংবদন্তি কণ্ঠশিল্পী আবদুল জব্বার এর দরাজ কণ্ঠ। তিনি চলে গেছেন না ফেরার দেশে। বুধবার (৩০ আগস্ট) সকাল ৯টা ১০ মিনিটে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ে নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। তার বয়স হয়েছিল ৭৯ বছর।

কণ্ঠশিল্পী আবদুল জব্বার এর অনেক দিন ধরে বিএসএমএমইউয়ের আইসিইউতে চিকিৎসা চলছিল। হাসপাতালের কিডনি রোগ বিভাগের প্রধান জানান, ‘তাঁর কোনো কিডনিই কাজ করছিল না। কিডনি প্রতিস্থাপনের পরামর্শ দেওয়া হয়েছিল। পরিবার সিদ্ধান্ত নিতে দেরি করায় শিল্পীর অবস্থার অবনতি হয়। এ পরিস্থিতিতে আমরা বোর্ড গঠন করে তাঁকে আইসিইউতে চিকিৎসার সিদ্ধান্ত নিই।’

আবদুল জব্বারের মৃত্যুতে দেশীয় সংগীতাঙ্গনে নেমে এসেছে শোকের ছায়া। তার মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। প্রধানমন্ত্রী তার শোক বার্তায় বলেন, ‘একুশে পদক ও স্বাধীনতা পদকপ্রাপ্ত বিশিষ্ট এই শিল্পীর স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্র থেকে গাওয়া গান ১৯৭১ সালে মুক্তিযোদ্ধাদের প্রেরণা ও মনোবল বাড়িয়েছিল।’

১৯৭১ সালে বাংলাদেশের স্বাধীনতাযুদ্ধ শুরু হওয়ার পর তিনি বাংলাদেশের মুক্তিযোদ্ধাদের মনোবল ও প্রেরণা জোগাতে স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্র থেকে ‘সালাম সালাম হাজার সালাম’, ‘জয় বাংলা বাংলার জয়’সহ অসংখ্য গানে কণ্ঠ দেন। তাঁর গানে অনুপ্রাণিত হয়ে অনেকেই মুক্তিযুদ্ধে অংশ গ্রহণ করেছিলেন।

কণ্ঠশিল্পী আবদুল জব্বার ১৯৩৮ সালের ৭ নভেম্বর কুষ্টিয়া জেলায় জন্মগ্রহণ করেন। ১৯৫৮ সাল থেকে তৎকালীন পাকিস্তান বেতারে তাঁর গান গাওয়া শুরু। তিনি ১৯৬২ সালে চলচ্চিত্রের জন্য প্রথম গান করেন। ১৯৬৪ সাল থেকে তিনি বিটিভির নিয়মিত গায়ক হিসেবে পরিচিতি পান। ১৯৬৪ সালে জহির রায়হান পরিচালিত তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তানের প্রথম রঙিন চলচ্চিত্র ‘সংগম’-এর গানে কণ্ঠ দেন।

১৯৬৮ সালে ‘এতটুকু আশা’ ছবিতে সত্য সাহার সুরে তাঁর গাওয়া ‘তুমি কি দেখেছ কভু’ গানটি জনপ্রিয়তা পায়। ১৯৬৮ সালে ‘পিচ ঢালা পথ’ ছবিতে রবীন ঘোষের সুরে ‘পিচ ঢালা এই পথটারে ভালোবেসেছি’ এবং ‘ঢেউয়ের পর ঢেউ’ ছবিতে রাজা হোসেন খানের সুরে ‘সুচরিতা যেয়ো নাকো আর কিছুক্ষণ থাকো’ গানে কণ্ঠ দেন। ১৯৭৮ সালে ‘সারেং বৌ’ চলচ্চিত্রে ‘ওরে নীল দরিয়া’ গানটিতে তিনি কণ্ঠ দেন, এ গানটির সুর করেছিলেন আলম খান।

এ ছাড়া যুদ্ধের সময় কণ্ঠশিল্পী আবদুল জব্বার প্রখ্যাত ভারতীয় কণ্ঠশিল্পী হেমন্ত মুখোপাধ্যায়কে নিয়ে মুম্বাইয়ের বিভিন্ন স্থানে বাংলাদেশের স্বাধীনতাযুদ্ধের পক্ষে জনমত তৈরিতে কাজ করেন। তখন কলকাতায় অবস্থিত বাংলাদেশের মুক্তিযোদ্ধাদের ক্যাম্প ঘুরে প্রেরণা জোগাতে হারমোনিয়াম বাজিয়ে গণসংগীত পরিবেশন করেছেন। সে সময় গণসংগীত গেয়ে প্রাপ্ত ১২ লাখ রুপি তিনি স্বাধীন বাংলাদেশ সরকারের ত্রাণ তহবিলে দান করেছিলেন।

তার গাওয়া ‘তুমি কি দেখেছ কভু জীবনের পরাজয়’, ‘সালাম সালাম হাজার সালাম’ ও ‘জয় বাংলা বাংলার জয়’ গান তিনটি ২০০৬ সালে বিবিসি বাংলার শ্রোতাদের বিচারে সর্বকালের শ্রেষ্ঠ ২০টি বাংলা গানের তালিকায় স্থান পায়।

স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের কণ্ঠশিল্পী আবদুল জব্বার স্বাধীনতা পদক, একুশে পদকসহ বিভিন্ন জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পদক পেয়েছেন।

https://www.pirganj24.com/bangladesh/4776/
Photo
Add a comment...

Post has attachment
প্রায় ১৭ দিন বন্ধের পর মঙ্গলবার (২৯ আগস্ট) সকাল থেকে বুড়িমারীর সঙ্গে সারাদেশে ট্রেন যোগাযোগ চালু হল। বন্যায় ১২ আগস্ট ওই রুটে ট্রেন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। লালমনিরহাট বিভাগীয় রেলওয়ে কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, বুড়িমারী-লালমনিরহাট-কাউনিয়া-সান্তাহার ও বুড়িমারী-লালমনিরহাট-রংপুর-পার্বতীপুরগামীসহ মোট চার জোড়া ট্রেন এই রুটে প্রতিদিন চলাচল করতো।

বন্যায় পানির প্রবল স্রোতে ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় গত ১২ আগস্ট থেকে এ রুটে ট্রেন চলাচল বন্ধ ছিল। লালমনিরহাট বিভাগীয় রেলওয়ে দফতর বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত বিভিন্ন রেললাইন মেরামত করে দুদিন পর লালমনিরহাট- ভোটমারী পর্যন্ত ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক করতে পারলেও হাতীবান্ধা রেলওয়ে স্টেশনের সামনে ১১০ ফুট লম্বা ও ২৩-১৫ ফুট গর্তের সৃষ্টি হওয়ায় বুড়িমারী স্থলবন্দর রেলওয়ে স্টেশন পর্যন্ত ট্রেন চালানো সম্ভব হয়নি। তবে দ্রুত অস্থায়ী ভিত্তিতে মেরামত করে মঙ্গলবার বুড়িমারী রেলওয়ে স্টেশনের সঙ্গে সারাদেশের ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক করা হয়েছে। এতে ঈদ যাত্রায় দেশের বিভিন্ন এলাকায় গমনকারী যাত্রীদের সুবিধা নিশ্চিত করা হয়েছে।

ট্রেন চলাচল বন্ধ থাকায় স্থানীয় লোকজনের মধ্যে অসন্তোষ দেখা দিয়েছিল। এখন ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক হওয়ায় স্থানীয় লোকজন খুশি। লালমনিরহাট-বুড়িমারী রুটে ট্রেন চলাচল বন্ধ থাকায় হাজার হাজার যাত্রী ভোগান্তিতে পড়েছিল।

লালমনিরহাটের রেলওয়ের সহকারী ট্রাফিক সুপারিনটেন্ডেন্ট (এটিএস) জানান, লালমনিরহাট বুড়িমারী রেল রুটের অনেক স্থানে রেল লাইনের উপর দিয়ে বন্যার পানি প্রবাহিত হয়ে লাইনের নিচের মাটি সরে গিয়ে বড় বড় গর্তের সৃষ্টি হয়। বিশেষ করে হাতিবান্ধা মেডিকেল মোড় এলাকায় রেল লাইনে প্রায় একশ মিটার দীর্ঘ লাইনের মাটি ধসে গর্তের সৃষ্টি হওয়ায় এ রুটে রেল যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে। পানি কমতে শুরু করলে স্থানীয়রা প্রথমে স্বেচ্ছাশ্রমে রেল লাইনের নিচের গর্ত ভরাটের কাজ শুরু করেন। পরে লালমনিরহাট রেলওয়ে প্রকৌশল বিভাগ রেল লাইন মেরামত করতে সক্ষম হয়।

লালমনিরহাট বিভাগীয় রেলওয়ে ম্যানেজার (ডিআরএম) নাজমুল ইসলাম বলেন, ‘ঈদকে সামনে রেখে হাতীবান্ধা রেলওয়ে স্টেশনের কাছে বন্যায় ভেঙে যাওয়া স্থানে দ্রুত পাইলিং করে অস্থায়ী ভিত্তিতে একটি ব্রিজ স্থাপনের মাধ্যমে লালমনিরহাট-বুড়িমারী রেলওয়ে সেকশনে ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক করা হয়েছে।’

বুড়িমারীর সঙ্গে সারাদেশে এই রুটে প্রতিদিন চার জোড়া ট্রেন চলাচল করে থাকে। মঙ্গলবার থেকে এসব ট্রেন ওই রুটে চলাচল করা শুরু করেছে। ফলে কোনও যাত্রী ঈদে বাড়ি ফেরার ভোগান্তিতে পড়বে না বলে আশা করছে বিভাগীয় রেল কর্তৃপক্ষ।
Add a comment...

Post has attachment
রংপুরের পীরগঞ্জ উপজেলায় এক ভ্যানচালককে হত্যা করেছে অজ্ঞাত হামলাকারীরা। সোমবার রাতে উপজেলার গুর্জিপাড়া - খালাশপীর সড়কে কানঞ্চপুর এলাকায় ঘটনাটি ঘটেছে।

পীরগঞ্জ থানার ওসি রেজাউল করিম বলেন, মঙ্গলবার বেলা ১২টার দিকে উপজেলার গুর্জিপাড়া - খালাশপীর সড়কের কানঞ্চপুর এলাকার ধান ক্ষেত থেকে ভ্যানচালক মিলন মিয়ার (৩২) লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। হত্যার পর তার রিচার্জেবল ব্যাটারিচালিত রিকশাভ্যানটি নিয়ে গেছে।

নিহতের পরিবার সূত্রে জানা গেছে, মদনখালী ইউনিয়নের ধাড়াকোল গ্রামে টুলু মিয়ার পুত্র দুই সন্তানের জনক মিলন মিয়া পেশায় একজন ভ্যানচালক।

নিহতের পরিবারের বরাত দিয়ে ওসি রেজাউল বলেন, মিলন ভ্যান চালিয়ে প্রতিদিন রাত ১০ট/১১ টার দিকে বাড়ি ফিরতেন। কিন্তু সোমবার রাতে তিনি বাড়ি ফেরেননি।

তিনি আরো জানান, মিলনের মাথা ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে ধারালো অস্ত্রের জখম রয়েছে। লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলে জানান তিনি।
Add a comment...

Post has attachment
প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যকে উদ্ধৃত করে জাতীয় সংসদের স্পিকার ও রংপুর-৬ পীরগঞ্জের এমপি ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেছেন, সরকার বন্যার্তদের পাশে আছে। কোন লোকই খাদ্যের অভাবে কষ্ট পাবে না। বন্যার ব্যাপারে আমরা প্রয়োজনীয় সব রকমের ব্যবস্থা নিয়েছি। বন্যার শুরুতেই পীরগঞ্জে ৫০ মে. টন চাল বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। আরও একশ মে. টন চাল দেয়া শুরু হয়েছে।


গতকাল সোমবার দুপুরে উপজেলার কাবিলপুর ইউনিয়নের লালদীঘির মেলা উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে হাজারো বন্যার্তদের মাঝে ত্রাণ ও কৃষি উপকরণ বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, বন্যায় রাস্তা-ঘাট, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। আমরা সেগুলো সংস্কারে উদ্যোগ নিয়েছি। পীরগঞ্জের কাবিলপুর, চতরা, চৈত্রকোল ও টুকুরিয়া ইউনিয়নে বন্যায় বেশী ক্ষতি হয়েছে।


ওই অনুষ্ঠানে কাবিলপুর ইউপি আ’লীগের সভাপতি রফিকুল ইসলাম বকুলের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন, জেলা প্রশাসক মুহাম্মদ ওয়াহিদুজব্জামান, জেলা পরিষদের প্রশাসক সাফিয়া খানম, আ’লীগের সহ-সভাপতি পীরগঞ্জ উপজেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান মোনায়েম সরকার মানু, আ’লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এ্যাড. আজিজুর রহমান রাঙ্গা, ইউপি চেয়ারম্যান রবিউল ইসলাম প্রমুখ।


কাবিলপুর ইউনিয়নে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করছেন স্পিকার ড. শিরীন শারমিন
কাবিলপুর ইউনিয়নে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করছেন স্পিকার ড. শিরীন শারমিন
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি জানান, কাবিলপুরে বন্যায় ৩’শ ২৫ জনকে ঘর মেরামতের জন্য ৫ লাখ টাকা, ২ হাজার বন্যার্তদের মাঝে ২০ কেজি করে চাল দেয়া হলো। এরপর তিনি চতরা উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে ত্রান বিতরন করেন। এতে গোলাম হোসেনের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন, চতরা ইউপি চেয়ারম্যান এনামুল হক শাহীন, ওই ইউপি আ’লীগের সম্পাদক রেজওয়ানুল হক ননতু।

এর আগে সকাল ১০ টায় স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী এমপি প্রধান অতিথি হিসেবে উপজেলা সেলাই প্রশিক্ষণ কেন্দ্র ও উপজেলা পরিষদ অডিটরিয়াম হলে বাল্য বিবাহ প্রতিরোধের মাধ্যমে মাতৃ মৃত্যু হ্রাসকরণ বিষয়ক কর্মশালার উদ্বোধন করেন। ওই অনুষ্ঠানে জাতীয় সংসদ সচিবালয়ের সিনিয়র সচিব ড. মু. আব্দুর রউফ হাওলাদারের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন, ইউএনএফপিএ’র কান্ট্রি ডিরেক্টর ইউরোকাতো, সাবেক স্বাস্থ্য মন্ত্রী আ.ফ.ম রুহুল হক এমপি, ঢাকা-৪ আসনের এমপি সানজিদা খানম, সংরক্ষিত আসনের এমপি সেলিনা বেগম, সংসদ সচিবালয়ের অতিরিক্ত সচিব আ.ই.ম গোলাম কিবরিয়া, পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান, পীরগঞ্জ পৌর মেয়র তাজিমুল ইসলাম শামীম, জেলা আ’লীগ নেতা একেএম ছায়াদত হোসেন বকুল, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মেহেদী হাসান রনি প্রমুখ। ওইদিন বিকালে বিমানযোগেই ঢাকা রওনা দেন।
Add a comment...

Post has attachment
নায়করাজের মৃত্যুতে শোকের বন্যা বইছে চলচ্চিত্রাঙ্গনে। সোমবার সন্ধ্যায় মুহূর্তেই তার মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়ে সারাদেশে। শোকতপ্ত চলচ্চিত্রকর্মীরা ছুটে যান রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে।
Add a comment...

Post has attachment
আসন্ন কোরবানি ঈদকে সামনে রেখে দিনাজপুরের হিলি সীমান্ত এলাকা দিয়ে ভারতীয় গরু প্রবেশ পুরোপুরি বন্ধ রয়েছে। অনুমোদন না মেলায় বৈধভাবে ভারত থেকে দেশে গরু আনার জন্য একটি বিট বা খাটাল এখনও চালু করা সম্ভব হয়নি।
Add a comment...
Wait while more posts are being loaded